php glass

প্যারিসে বাংলাদেশি বইমেলা

328 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ফ্রান্সে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো বাংলাদেশি বইয়ের মেলা। বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ফ্রান্স সংসদ আয়োজিত মেলায় প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করে বিপুল প্রবাসী পরিবার-পরিজন নিয়ে উপস্থিত হন।

ফ্রান্স: একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ফ্রান্সে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো বাংলাদেশি বইয়ের মেলা।

বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ফ্রান্স সংসদ আয়োজিত মেলায় প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করে বিপুল প্রবাসী পরিবার-পরিজন নিয়ে উপস্থিত হন। মেলায় বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত প্রায় ১ হাজার ২০০ বই প্রদর্শিত হয়।

সম্প্রতি দিনব্যাপী এ বইমেলায় প্যারিস প্রবাসীরা অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান। এরপর একুশজন শিশু-কিশোর আনুষ্ঠানিকভাবে অমর একুশে বইমেলার উদ্বোধন করে।

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর অর্ধশত শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল ‘আমার দেশ বাংলাদেশ, আমার ভাষা বাংলা’। ছবিতে প্যারিসের বাঙালি শিশুরা তুলির মাধ্যমে মহান ভাষা আন্দোলনকে দারুণভাবে ফুটিয়ে তোলে। এ প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন হামিদ ভূইয়া ও কাজী ইসমাইল হোসেন।
 
পরে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। একই সঙ্গে ‘চেতনায় একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ শীর্ষক আলোচনা সভা হয়।

কামরুল হাসান উজ্জ্বলের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফরাসী লেখিকা, ইতিহাসবিদ ও গবেষক লিজেল শিফে ও বিশেষ অতিথি ডা. শাহেদা ইসলাম।

অন্যদের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন ফ্রান্সে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে সম্মানিত প্রতিনিধি হজরত খান ও ফরাসী কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ক্ল্যার।

আলোচনা শেষে কবিতা আবৃত্তি করেন বরেণ্য কবি ও আবৃত্তিকার রবি শংকর মৈত্রী, সাইফুল ইসলাম ও শর্মিষ্ঠা বড়ুয়া।

বইমেলার শেষ পর্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেশাত্ববোধক গান ও গণসংগীত পরিবেশন করেন গৌতম কুমার ও তার সহশিল্পীরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৫

রবির কাছে বিটিআরসির পাওনা: হাইকোর্টের আদেশ পেছালো
জাভেদ হাবিব কেন চুলে সরিষার তেল মাখতে বলেন! 
নদীর তীরের গাছ রক্ষায় স্বেচ্ছাসেবীদের নিবন্ধনের অনুরোধ
পলাতক আসামিদের ফেরত এনে বিচার-দণ্ড কার্যকরে টাস্কফোর্স
জয়পুরহাটে ধর্ষণ-হত্যা মামলায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড


‘তোতলামি কোনো শারীরিক ত্রুটিজনিত সমস্যা নয়’
ব্যর্থতার দায়ে ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্ত করা উচিত: ইরান
রাজশাহীতে গ্যাংকালচার অপরাধ চক্রের মূলহোতা আটক
তালাকপ্রাপ্ত স্বামী এসিডে ঝলসে দিলেন স্ত্রী-কন্যাকে
‘নজরদারিতে’ চসিকের ৮ কাউন্সিলরসহ অর্ধশতাধিক