php glass

গ্যাসের দাম সহনীয় বাড়াতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস বা এলএনজি/ সংগৃহীত ছবি

walton

ঢাকা: এলএনজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) এসে গেছে, আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে দাম বাড়াতে হবে। তবে প্রধানমন্ত্রীর কথা হচ্ছে ধাপে ধাপে বাড়াতে হবে। আমরা বিইআরসিকে (বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন) বলেছি সহনীয় পর্যায়ে দাম বাড়াতে।

শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) প্রেসক্লাবে এফইআরবি আয়োজিত বিদ্যুতের নেট মিটারিং শীর্ষক সেমিনারে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী এমন মন্তব্য করেছেন।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উপর গণশুনানি হয়েছে গত জুলাইয়ে। এখনও কোন সিদ্ধান্ত দেয়নি বিইআরসি। তবে উপদেষ্টার বক্তব্যে অনেকটা পরিষ্কার হয়েছে শিগগিরই দাম বাড়তে যাচ্ছে।

তৌফিক ই- ইলাহী চৌধুরী বলেন, এলএনজি ইফিসিয়েন্সির দিকে গেলো। আমরাও ধীরে ধীরে দাম সমন্বয় করবো।

নেট মিটারিং প্রসঙ্গ টেনে জ্বালানি উপদেষ্টা বলেন, আমার মনে হয় শিল্পপতিরা এতে অনেক লাভবান হবেন। সোলার প্যানেল থাকবে ছাদে। সেখান থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ নিজে ব্যবহার করতে পারবে। আবার উদ্বৃত্ত হলে জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করতে পারবে। কারখানা যেদিন বন্ধ থাকবে সেদিনের পুরোটা জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করবে। যেটুকু গ্রিডে সরবরাহ করবে তার জন্য মূল্য পাবে।

কেউ যদি মাসে ১শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ গ্রিডে দেন তাহলে তার মোট ব্যবহৃত বিদ্যুৎ ইউনিট থেকে ১শ’ মেগাওয়াট বাদ দিয়ে বিল দেওয়া হবে। নিজের কারখানার ছাদ ব্যবহার করায় তার উৎপাদন খরচ কম হবে। এতে শিল্পপতিরা অনেক লাভবান হবেন বলে মন্তব্য করে উপদেষ্টা।

তিনি বলেন, আমরা বিতরণ কোম্পানিগুলোকে পাইলট আকারে ২০ জন গ্রাহককে নেট মিটারিংয়ের আওতায় আনার জন্য বলেছি। প্রয়োজন হলে তাদের ইনসেনটিভ দেওয়া হবে। অথবা তাদেরকে বলা তারা যেনো সিএসআর থেকে উদ্যোগ নেন।

বাংলাদেশের সবক’টি এয়ারপোর্টে সৌরবিদ্যুতের প্যানেল স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এতে প্রায় ১শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়া সম্ভব। এজন্য একটি টিম দিল্লি বিমানবন্দর পরিদর্শনে গেছেন বলে জানান তিনি।

উপদেষ্টা বলেন, আমাদের এখানে যখন সন্ধ্যা গুজরাটে তখন আলো থাকে। আমরা এটাকেও কাজে লাগানোর চেষ্টা করছি। কৃষির ক্ষতি না করেও সোলার প্যানেল স্থাপন করা সম্ভব। সবার সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।

বিদ্যুৎ বিভাগের উন্নয়ন ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান পাওয়ার সেল’র মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, কোনো কিছু চাপিয়ে দিয়ে কাজ হয় না। আমরা বাসাবাড়িতে বিদ্যুৎসংযোগ সোলার হোম সিস্টেম বাধ্যতামূলক করেছিলাম। কিন্তু  আপনারা সেই  সুযোগ কাজে লাগাতে পারেন নি। অনেকে সোলার প্যানেল ভাড়া দিয়েছেন বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য। নেট মিটারিংয়ের ক্ষেত্রে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

এফইআরবি’র চেয়ারম্যান অরুণ কর্মকারের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এসএমএমএবি’র প্রেসিডেন্ট মনোয়ার মিসবাহ মঈন, ওমেরা সোলারের মাসুদুর রহমান, এফইআরবি’র ইডি  সদরুল হাসান।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮/আপডেট: ১৫৫০ ঘণ্টা
এসআই/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এলএনজি
শুরু হচ্ছে ‘বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৯’
চসিক নির্বাচনের পর নগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
প্রিয়জনের ফেরার প্রতীক্ষায় ১২ বছর
‘ডাবল সেঞ্চুরি’ হাঁকিয়ে এগোচ্ছে পেঁয়াজ


ত্রিপুরায় পরীক্ষামূলক ড্রাগন ফলের চাষ
পানি ময়লা কাদা মাটিতেই চলছে ড্রেন ঢালাই
ডাবের পানির পুডিং! 
আবারও সেরা করদাতা ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া
দিনের শুরুতে পুজারা-কোহলিকে সাজঘরে ফেরালেন আবু জায়েদ