ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে জাদুঘরে প্রদর্শনী শুরু

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮
বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে জাদুঘরে প্রদর্শনী শুরু বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে জাদুঘরে আলোকচিত্রী জাহাঙ্গীর আলম জনির আলোকচিত্র প্রদর্শনী। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: দেশের সব বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরে আলোকচিত্রী জাহাঙ্গীর আলম জনির আলোকচিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ‘আলোর মিছিল’ শীর্ষক প্রদর্শনী জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টাশালী গ্যালারিতে উদ্বোধন করা হয়। এ সময় অ্যালবামেরও মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

প্রদর্শনী চলবে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। প্রদর্শনীতে ১২৫টি বিদ্যুৎকেন্দ্রের ছবি রয়েছে। তার মধ্যে ২০০৯ সালের পর ৯৪টি বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপিত হয়েছে। এর আগে ছিল ২৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র। তবে বর্তমানে ১২১টি বিদ্যুৎকেন্দ্র রয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন-বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য আবু তাহের, জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক আব্দুল মান্নান ইলিয়াস ও উপ-সচিব সাধন চন্দ্র দেব।

আবু তাহের বলেন, আমরা বিদ্যুৎ ব্যবহার করি কিন্তু দেখতে পাই না। এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে আমরা দেশের বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে। এতে বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্পর্কে একটি ধারণা পাবে। বাংলাদেশ বহু চড়াই উতরাই পেরিয়ে আজকে ১৮ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন করতে সক্ষম হয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে আমরা প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছানোর জন্য কাজ করছি।

আব্দুল মান্নান ইলিয়াস বলেন, এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে জানবে। মানুষ ভাষা না জানলে কোনো কিছুই বুঝাতে পারে না। কিন্তু চিত্রের মাধ্যমে পৃথিবীর সব ভাষার মানুষকে বোঝানো যায়। আজকে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়েছে। সম্মিলিতভাবে দেশকে গড়ে তুলতে হবে।

আলোকচিত্রী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি দুই বছর ধরে চেষ্টা করেছি প্রদর্শনীটির আয়োজন করতে। অবশেষে সফল হয়েছি। এখানে ৮৫ ভাগ ছবি আমার নিজের, বাকিগুলো সংগ্রহ করেছি।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৩৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৮
এসকেবি/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa