ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

রাজনীতি

সিলেটে আওয়ামী লীগের বঞ্চিতদের প্রতিবাদ মিছিল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
সিলেটে আওয়ামী লীগের বঞ্চিতদের প্রতিবাদ মিছিল

সিলেট: নেত্রীর সিদ্ধান্ত অমান্য করে নিজস্ব বলয়ের অখ্যাতদের নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটির খসড়া জমা দেওয়ার প্রতিবাদে সিলেটে বঞ্চিত নেতাদের উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছিল বের করা হয়েছে।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নগরের কোর্ট পয়েন্ট এলাকা থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে তালতলায় গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ মিছিল পরবর্তী পথ সভায় বক্তারা বলেন, দীর্ঘ নয় মাস পর জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হতে যাচ্ছে শুনে আমরা বুক ভরা আশা নিয়ে ছিলাম দলের পরীক্ষিত এবং ত্যাগী নেতাদের প্রস্তাবিত খসড়া কমিটিতে মূল্যায়ন করা হবে, কিন্তু তৃণমূল নেতাদের যথাযথ মূল্যায়ন না করে, দলীয় সভানেত্রীর আদেশ অমান্য করে নিজ পছন্দের কর্মীদের গুরুত্বপূর্ণ পদে দেওয়া, ত্যাগী নেতাদের বাদ দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে।

তারা বলেন, জেলা কমিটিতে বিতর্কিত ব্যবসায়ী, বালু-পাথর খেকো, দুর্নীতিবাজ, বঙ্গবন্ধু হত্যার খুনি পরিবারের সদস্য দিয়ে প্রস্তাবিত খসড়া কমিটি কেন্দ্রে প্রেরণ নিয়ে জেলা পর্যায়ে বিক্ষোভ প্রতিবাদ জানাই। জেলা আওয়ামী লীগের গত কমিটির পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেব পরিচিত সিলেট ৪ আসনের ৭বারের সংসদ সদস্য বর্তমান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপিকে জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত খসড়া কমিটিতে সদস্য পদে রাখা হয়নি।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান দুর্দিনের কারা নির্যাতিত ত্যাগী নেতা এম. শাহরিয়ার কবির সেলিমকে গত দুই কমিটিতে রাখা হয়নি। বিয়ানীবাজার বাসিন্দা হওয়াতে এবং এবারের বর্তমান সাধারণ সম্পাদকের বাড়ি বিয়ানীবাজার হওয়াতে প্রতিদ্বন্দ্বী ভেবে এবারও জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত খসড়া কমিটিতে নূন্যতম সদস্য পদেও রাখা হয়নি, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক ত্যাগী নেতা জগলু চৌধুরী, দুর্দিনে সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ হিরা কে প্রাণে মারা উদ্দেশ্যে গুলি করা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মকলু মিয়াকেও জেলা আওয়ামীলীগের প্রস্তাবিত খোসড়া কমিটিতে সদস্য পদেও রাখা হয়নি।

মিছিল পরবর্তী পথ সভায় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা কয়েছ আহমদ, মাহবুবুল হক, আব্দুল মুতলিব, সোবহান আহমদ, নোমান আহমদ, জসিম উদ্দিন, নাজমুল ইসলাম মাসুম, রেজানোর রহমান সেলিম, ইয়াছিন আহমদ সুমন, রকিব আলী, মীর্জা হামিদ অভি, ফয়ছল আহমদ, নবী হোসেন জীবন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৫ ঘন্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
এনইউ/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa