ঢাকা, সোমবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

তদন্তের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু হত্যার চক্রান্তের মুখোশ উন্মোচন করতে হবে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
তদন্তের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু হত্যার চক্রান্তের মুখোশ উন্মোচন করতে হবে বক্তব্য রাখছেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত জিয়াউর রহমানসহ আন্তর্জাতিক কুচক্ররের মুখোশ উন্মোচনের দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

নানক বলেন, ১৫ আগস্ট শুধুই কি কিছু উদ্ভ্রান্ত চিন্তার সামরিক অফিসার এই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে? কি কারণে বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল এ বিষয়গুলো আমাদের রাজনৈতিকভাবে চিন্তা করতে হবে।

সেদিনের জিয়াউর রহমানের এই গভীর ষড়যন্ত্রের মূলনায়ক। শুধু জিয়াউর রহমানই নয় এর পেছনে আন্তর্জাতিক কিছু কুচক্রী মহলের হাত ছিল। সেই কুচক্রী মহল জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারীদের জাতির সামনে মুখোশ উন্মোচন করা আজকের জরুরি প্রয়োজন।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে স্বেচ্ছাসেবকলীগের আলোকচিত্র প্রদর্শনী ইতিহাস কথা কয় এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, সেদিন বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে, শেখ মনিকে নিয়ে যেভাবে অপপ্রচার চালিয়েছে এই সময়ে এসেও সেই কুচক্রী মহল একইভাবে বাংলার মাটিতে বসে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধেও অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে নানক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ পরিচালনা হচ্ছে বলেই দুর্নীতি করে কেউ আর ছাড় পাচ্ছে না। এখন দুর্নীতি করে কেউ ছাড় পেয়েছে এমন নজিরও বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেখাতে পারবেন না। সেসময়ও জিয়াউর রহমান সংসদে আইন পাস করে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে বিভিন্ন সুবিধা দিয়ে যে পাপ করেছেন সে পাপে পাপীষ্ঠ হয়ে আপনাদের রাজনীতি এখন মৃত্যুর পর্যায়।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম বলেন, যারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত ছিলো, যারা ১৫ আগস্টের পটভূমি তৈরির ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে তাদের কর্মকাণ্ড, তাদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন হওয়া প্রয়োজন। খুনিদের বিচার করা হচ্ছে কিন্তু এর পেছনে যারা ছিলো তাদের মুখ উন্মোচন করার দরকার। এজন্য একটি কমিশন গঠন করার আহ্বান।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আফজালুল রহমান বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নেতা ম আব্দুর রাজ্জাক, মেজবাউল হোসেন, খাইরুল হাসান জুয়েল, নাপা, আব্দুল আজিজ, কে এম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল, মহানগর দক্ষিণের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, মির্জা মোরশেদ মিলন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
এসকে/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa