ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

রাজনীতি

সরকার গায়ের জোরে দেশ চালাচ্ছে: ড. মোশাররফ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৫ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০২০
সরকার গায়ের জোরে দেশ চালাচ্ছে: ড. মোশাররফ

ঢাকা: ঢাকা-১০ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শেখ রবিউল আলম রবির পক্ষে গণসংযোগে অংশ নিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘করোনা ভাইরাস এদেশে আগেই এসেছে। কিন্তু সরকার তাদের একটি অনুষ্ঠান সফল করার জন্য এটি গোপন রেখেছিল। এ রোগটি বিশ্বে আজ মহামারি আকার ধারণ করেছে। অথচ সরকার প্রয়োজনীয় কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। করোনা ভাইরাসের মতো তারাও গায়ের জোরে ফ্যাসিবাদী কায়দায় দেশ শাসন করছে।’ 

বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগের সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।  

এ সময় বিএনপির প্রার্থী শেখ রবিউল আলম, ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি ও দলের যুগ্ম মহাসচিব হাবীব উন নবী খান সোহেল, সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, বিএনপি নেতা নবী উল্লাহ নবী ও ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনসহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবকদলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। তাই জনগণের প্রতি তাদের কোনো দায়িত্ববোধ নেই। করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়লেও তারা প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি, লোকবল কিংবা প্রচার-প্রচারণা চালায়নি। আমরা জনগণকে সচেতন করছি। তাদের সঙ্গে নিয়ে এ ভাইরাস মোকাবিলায় ভূমিকা রাখবো। ’ 

নিজ দলের প্রার্থী শেখ রবিউল আলম রবিকে পরিচয় করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, ‘রবি ধানের শীষের প্রার্থী। খালেদা জিয়ার মনোনীত প্রার্থী। ঢাকা-১০ আসনের জনগণের সঙ্গে তার নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। আপনারা তাকে ভোট দেবেন। ভোট দিয়ে এ ফ্যাসিবাদী সরকারকে বুঝিয়ে দেবেন আপনারা তাদের সঙ্গে নেই। ’  

রবি তার বক্তব্যে বলেন, ‘জনগণ ভোট দিতে চায়। তারা ভোট দেবার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। আমি তাদের অধিকার আদায়ে সোচ্ছার হবো, সজাগ থাকবো। রাষ্ট্রের মালিকানা জনগণের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া ও এলাকার উন্নয়নের বিষয়ে শঙ্কাহীনভাবে জাতীয় সংসদে ভূমিকা রাখবো। ’

আওয়ামী লীগের প্রার্থী মহিউদ্দীনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘণের ব্যাপক অভিযোগ তুলে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রবিউল বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন বিপুল লোকবল নিয়ে গণসংযোগের জন্য প্রত্যেককে পাঁচ দিনের একটি বিধি করে দিয়েছে। কিন্তু আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তার কিছুই মানছেন না। অবৈধভাবে ব্যানার-পোস্টার লাগিয়েছেন। প্রতিদিনই হাজার হাজার কর্মী-সমর্থক নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। আমিও চাইলে প্রতিদিনই ব্যাপক শোডাউন দিতে পারি। বিএনপি জনগণের দল। শোডাউন দেওয়া মুহূর্তের ব্যাপার। আমি নিয়ম মেনে গণসংযোগ চালাচ্ছি। তবে এটা ঠিক যে আমার প্রচারণায় সাধারণ ভোটারদের উপস্থিতি বাড়ছে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৮২২ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০২০
এমএইচ/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa