ঢাকা, রবিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

আওয়ামী লীগ

গ্রামেও এখন এসি আছে: তোফায়েল আহমেদ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৫৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩, ২০১৯
গ্রামেও এখন এসি আছে: তোফায়েল আহমেদ বক্তব্য দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদ, ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা ক্ষমতায় আসার পর গ্রামকে শহরে পরিণত করেছেন। এয়ারকন্ডিশন আগে কেবল শহরে দেখা যেত। এখন গ্রামেও আছে। এটাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশ। যে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (০২ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে নগরের কবি নজরুল অডিটরিয়ামে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, ছয় দফা দেওয়ার পর আটবার গ্রেফতার হন বঙ্গবন্ধু।

নিজেও জীবনে অনেকবার কারাগারে গিয়েছি। দলের সাংগঠনিক সম্পাদক থাকা অবস্থায় ছিলাম কুষ্টিয়ার কারাগারে।

তিনি বলেন, ৭৫ পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ আমরা বাজাতে পারতাম না। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলতে চেয়েছিলেন। তখনও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে বিচ্যুত হইনি। সেই সময়ে আলোকবর্তিকা হয়ে বিধ্বস্ত আওয়ামী লীগের হাল ধরেন শেখ হাসিনা। তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করে চলেছেন। তার নেতৃত্বেই আমরা এখন দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে জিডিপিতে শ্রেষ্ঠ অবস্থানে রয়েছি।

সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করি।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমানের পরিচালনায় বর্ধিত সভায় তিনি বলেন, আজ সিলেটে এসে জানলাম আওয়ামী লীগে দ্বিধাবিভক্তি। উপজেলা কমিটি করা করা হয়নি। এটা শেখ হাসিনার দলে মানায় না।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, কেন্দ্রীয় সদস্য রফিকুর রহমান, সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, সংসদ সদস্য শামীমা শাহরিয়ার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ০২, ২০১৯
এনইউ/টিএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa