php glass

কক্সবাজারে ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৪ জনকে কোপালো সন্ত্রাসীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কক্সবাজার

walton

কক্সবাজার: কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী তামজিদ পাশাসহ চার জনকে নৃশংসভাবে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। 

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার খুরুশকুলের তেতৈয়া এলাকায় তাদের ওপর এ হামলা হয়। 

আহত চার জন হলেন- কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও খুরুশকুলের তেতৈয়া এলাকার শফিউল হকের ছেলে কাজী তামজিদ পাশা (২৭), একই এলাকার আবুল কালামের পুত্র মোহাব্বত (২৮), ছাত্রলীগ নেতা বাপ্পী (২৭) এবং আবুল কাশেম জয় (২৮)। আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কাজী তামজিদ পাশার বড়ভাই দিদারুল হক বাংলানিউজকে জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে তামজিদ তার সঙ্গীদের নিয়ে বেড়িবাঁধের পাশে নিজেদের জমির চাষাবাদ দেখভাল করে বাড়ি ফিরে আসছিলেন। তখন সন্ত্রাসীরা তাদের ওপর হামলা চালায় এবং তামজিদ পাশার মাথায় ও শরীরে উপর্যুপরি কোপাতে থাকে। অন্যদেরও হাতুড়ি ও অন্যান্য অস্ত্র দিয়ে জখম করা হয়। গুরুতর আহত তামজিদকে নিয়ে তার সঙ্গীরা পাশ্ববর্তী ভারুখালীতে চলে গিয়ে প্রাণে রক্ষা পান। খবর পেয়ে পুলিশ ভারুয়াখালী থেকে তাদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

দিদারুল হকের দাবি, তেতৈয়া এলাকার বাদশা মিয়ার ছেলে শেখ কামালের নেতৃত্বে পুতিয়া, লুতিয়া ও আজিজুল হকসহ ১০-১২ জনের একদল সন্ত্রাসী এই হামলা চালিয়েছে। এসময় ভারুখালীর বরকত উল্লাহ নামের এক যুবককেও সন্ত্রাসীরা অপহরণ করেছে বলে দাবি তার।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ উদ্দীন খন্দকার বাংলানিউজকে জানান, হামলাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৩০৩ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১৯
এসবি/এইচএ/

ksrm
ভালুকায় নারী সাংবাদিকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
সাভারে আ’লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা 
প্রধানমন্ত্রীর সফরে বিমানবন্দরে উপস্থিতিতে নির্দেশনা
তারাকাইকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানালেন সাইফ
আড়াইহাজারে বাল্যবিয়ে বন্ধ, কনের বাবা-মাকে জরিমানা


১৯৭১ স্মরণে লতা মঙ্গেশকর
ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকারের অবহেলা নেই: হানিফ
ঢামেক হাসপাতালে এক্স-রে বিড়ম্বনায় রোগীরা
প্রথম বলেই গুরবাজের স্ট্যাম্প উপড়ে ফেললেন সাইফ
গোয়ালঘরে আশ্রয় বৃদ্ধার, পুলিশের সহায়তায় মুক্ত