আ’লীগের জাতীয় সম্মেলন: কমিটিতে অগ্রাধিকার পাবেন তরুণরা

শামীম খান, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লোগো

walton

ঢাকা: দলে নতুন নেতৃত্ব তৈরি করতে আওয়ামী লীগের আগামী জাতীয় সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কমিটিতে তরুণদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এতে বেশ কিছু নতুন মুখ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদে স্থান পাবেন। পাশাপাশি বর্তমান কমিটি থেকে বাদ পড়বেন অনেকে।  

php glass

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন নেতৃত্ব তৈরি এবং যোগ্য ও দক্ষ নেতৃত্ব বাড়ানোর উপর গুরুত্ব দিচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। দলের গত তিনটি জাতীয় সম্মেলনে এই প্রক্রিয়া অনুসরণ করে নতুনদের নেতৃত্বে নিয়ে আসা হয়েছে ও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এবারও এই প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

আওয়ামী লীগের নীতি-নির্ধারনী পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ছাত্রলীগের সাবেক কিছু নেতা বিশেষ করে যারা সংগঠনটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক বা শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃত্বে ছিলেন এবং বর্তমানে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন তাদের একটি অংশ এবার কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেতে পারেন।

২০০৯ সালের জাতীয় সম্মেলনেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক তরুণ ও নতুন মুখকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে নিয়ে আসা হয় এবং গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হয়। তখন পুরোনো অনেকেই কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বাদ পড়েন। এবারও নতুনদের স্থান করে দিতে বর্তমানে যারা কেন্দ্রীয় কমিটিতে আছেন তাদের মধ্য থেকে কিছু বাদ পড়বেন। 

এই বাদের মধ্যে মন্ত্রিসভার কিছু সদস্যও থাকতে পারেন। যদিও এবারের মন্ত্রিসভার অধিকাংশ সদস্যই দলের কেন্দ্রীয় কমিটির বাইরে। আবার এদের বড় অংশ তরুণ এবং নতুন মুখ। 

নতুন নেতৃত্ব তৈরিতে যেমন দলে তরুণদের টানা হচ্ছে একইভাবে সরকারেও স্থান করে দেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন ওই নেতারা। 

দলীয় সূত্র বলছে, দলকে শক্তিশালী রাখতে সাংগঠনিক ভিত্তিকে শক্ত করার উপর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা যাতে সার্বক্ষণিক দলে সময় দিতে পারেন সে বিষয়টির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা একজন নেতা একই সময় মন্ত্রী হলে তাকে দল এবং সরকারে দায়িত্ব পালন করতে হয়। এ অবস্থায় দুই দিকে সময় দিতে গিয়ে কোনো কোনো ক্ষেত্রে কার্যক্রম ব্যাহত হয়। তাই এ বিষয়টিও আলোচনায় আসছে জোরালোভাবে। 

দলীয় নেতারা বলেন, বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধুর উদাহরণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বলেছেন, মন্ত্রিত্ব ছেড়ে বঙ্গবন্ধু দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। দলের সভাপতির এই বক্তব্যের মধ্যেও বিষয়টি স্পষ্ট। 

এবারের মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে ১০ জন রয়েছেন। আগামী সম্মেলনে এটা আরও কমে আসবে। দল ও সরকারকে আলাদা করার দীর্ঘদিনের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই এটা করা হতে পারে। 

তাই পরের কমিটিতে মন্ত্রিত্ব নেই এমন কয়েকজন নেতাও বাদ পড়বেন বলে জানান ওই নেতারা। 

জানা যায়, চলতি বছর অক্টোবরে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় সম্মেলনের পূর্ব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে শুরু করে দিয়েছে দলটি। তৃণমূল পর্যায় থেকে বিশেষ করে জেলা উপজেলা পর্যায়ে সম্মেলনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

এই সম্মেলনগুলো তদারকির জন্য দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের নেতৃত্বে ৮টি টিম গঠন করা হয়েছে। এবারের জাতীয় সম্মেলনে দলকে ঢেলে সাজানো হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

গত ১৯ এপ্রিল আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের যৌথসভায় শেখ হাসিনা বলেন, যে কমিটি করেছি এই কমিটির দায়িত্ব থাকবে আমাদের সংগঠনগুলোকে একেবারে তৃণমূল পর্যায় থেকে নতুন করে ঢেলে সাজানো; কোথায় কমিটি আছে না আছে সেগুলো দেখা; সাংগঠনিকভাবে আওয়ামী লীগকে আরও মজবুত করে গড়ে তোলা। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। 

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, তরুণ নেতৃত্ব দলে সব সময়ই আসছে। আমরা যারা সিনিয়র আছি, বয়স হয়ে যাচ্ছে, আমরা সরে পড়ছি আর তরুণরা আসছে। এবারও তরুণরা আসবে। দলে নতুন নেতৃত্ব তৈরি করে দলকে শক্তিশালী করার জন্যই এই প্রক্রিয়া।
 
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর অপর সদস্য কর্নেল (অব.) ফারুক খান বাংলানিউজকে বলেন, সম্মেলনের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা পর্যায়ে যেখানে কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ সেখানে সম্মেলন করা হবে। এর জন্য কেন্দ্রীয়ভাবে যে ৮টি কমিটি করা হয়েছে সেই কমিটিগুলো দ্রুতই কাজ শুরু করবে। দলকে ঢেলে সাজানো হবে। 

‘অনেকে মনে করেন দল ও সরকারকে আলাদা করা দরকার। একজনকে একটি দায়িত্ব দেওয়াই ভালো। যাতে দায়িত্বটা যথাযথভাবে পালন করা যায়। তবে দলে এ রকম কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি,’ যোগ করেন তিনি। 

বাংলাদেশ সময়: ০৬১০ ঘণ্টা, মে ১০, ২০১৯ 
এসকে/এমএ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: রাজনীতি আওয়ামী লীগ
খিলগাঁয়ে কাভার্ড ভ্যানচাপায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু
ট্রেনের টিকিটের জন্য রাত জাগছেন তারা
ক্রেতা টানতে বুলি, ফুটপাতে জমেছে বিকিকিনি
নূরজাহান বেগমের প্রয়াণ
ইতিহাসের এই দিনে

নূরজাহান বেগমের প্রয়াণ

রাজধানীতে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি


রহমতগঞ্জকে উড়িয়ে দিয়ে শেখ জামালের বড় জয়
রমজানে রাতভর এবাদত-বন্দেগিতে সজাগ বাড়িটি
ভেজাল তেল কারখানায় গোয়েন্দা পুলিশের হানা
গাজীপুরে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু
চলে গেলেন বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী খালিদ হোসেন