‘বিএনপি জোটের অনেক নেতা আফগানিস্তানে ট্রেনিংপ্রাপ্ত’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমদু। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অনেক নেতা আফগানিস্তানে ট্রেনিং নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। একই সঙ্গে বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ নির্মূলে বিএনপিকে বড় প্রতিবন্ধকতা হিসেবে মনে করেন তিনি।

php glass

রোববার (০৫ মে) দুপুরে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

‘জঙ্গিবাদ নির্মূলে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ।

এতে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, সম্প্রতি ভারতে জঙ্গি হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হওয়ার পর ওই দেশের সব বিরোধীদল জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু আমাদের দেশের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। 

‘আমাদের দেশের একটি বড় রাজনৈতিক দল জঙ্গিদের রাজনৈতিক মিত্র এবং সহযোগী হিসেবে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অনেক দলের নেতা আফগানিস্তানে ট্রেনিংপ্রাপ্ত।’

তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে সেই হাওয়া ভবনের পরিকল্পনায় ২১ আগস্টের হামলা হয়, যা আজ আদালতে প্রমাণিত। তাদের সময়েই বাংলা ভাই হয়ে উঠার পেছনে প্রশাসনিক সহায়তা দেয়া হয়েছিলো।

বিএনপি জঙ্গি পোষণ ও তোষণ করে- এমন মন্তব্য করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে দমন করতে তারা জঙ্গিদের ব্যবহার করে।

‘বর্তমান সরকার যখন জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ক্রমাগত অভিযান চালাচ্ছিলো তখন বিএনপির পক্ষ থেকে প্রশ্ন তোলা হয়। অর্থাৎ বিএনপি এবং তাদের নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে জঙ্গি পৃষ্ঠপোষকতাই বাংলাদেশে জঙ্গি দমনে সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা বলেই আমি মনে করি,’ যোগ করেন তিনি। 

বিএনপিকে ‘সংবাদ সম্মেলনভিত্তিক দল’ হিসেবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, তারা (বিএনপি) এখন শুধু সংবাদ সম্মেলন করে আর হঠাৎ হঠাৎ নিষিদ্ধ সংগঠনের মতো কোথাও চোরাগোপ্তা মিছিল করে।
 
তিনি বলেন, সম্প্রতি বিএনপির পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ মোকাবেলায় সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেয়নি। অথচ সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে বলে-ই এই দুর্যোগে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। 

‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে ১৯৯১ সালের ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস থাকা স্বত্ত্বেও ২ লাখ লোকের প্রাণহানি ঘটেছিলো। এরপরও তখনকার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছেন, যত মানুষ মারা যাওয়ার কথা ছিলো, তত মানুষ মারা যায়নি।’

দুর্যোগ-দুর্দশায় মানুষের সঙ্গে তামাশা না করে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তব্য দেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী, অধ্যাপক ড. আবুল বারাকাত প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৩ ঘণ্টা, মে ০৫, ২০১৯
পিএম/এমএ

সীতাকুণ্ডে পুলিশের উপর হামলা, ইয়াবাসহ আসামি ছিনতাই
বর্ষার আত্মহত্যার তদন্তে মোহনপুর থানার ওসি প্রত্যাহার
পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা
পেকুয়ায় ধর্ষণের শিকার শিশুর আত্মহত্যার চেষ্টা
বেলকুচিতে ঝড়ে গাছ পড়ে শিশুর মৃত্যু


ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবরোধ প্রত্যাহার
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পণ্য তৈরি, ১২ লাখ টাকা জরিমানা
পলাশবাড়িতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১
শ্রীমঙ্গল থেকে বিশালাকৃতির ‘শঙ্খিনী’ সাপ উদ্ধার
মহম্মদপুরে আম পাড়া নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫, আটক ৪