php glass

সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে ক্ষুব্ধ জাপার নেতারা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় পার্টি

walton

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের উন্মুক্ত আসনে অংশ নেওয়া জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থীদের ওপর হামলা ও তাদের লাঞ্ছিত করার বিষয়সহ মনোনয়ন  দেওয়া নিয়ে সর্বপরি দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে ক্ষুব্ধ জাতীয় পার্টির নেতারা।

তাদের মতে, দলে সুযোগ সন্ধানী নেতাদের বারবার মনোনয়ন দেওয়া হয়। যারা সংসদ সদস্য হওয়ার পর আর দলের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পৃক্ততায় থাকে না। এমনকি জাপার নেতারা বিপদে পড়লেও দলের পক্ষ থেকে কোনো সহায়তা করা হয় না।

মঙ্গলবার (১ জানুয়ারি) বনানীর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে দলটির ৩৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় এসব ক্ষোভ প্রকাশ করেন জাপার নেতাকর্মীরা।

এ সময় তোপের মুখে পড়েন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা দলটির মহাসচিব মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা।

সভায় মানিকগঞ্জ-৩ ও মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের লাঙ্গলের প্রার্থী তাদের নির্বাচনী অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বলেন, কয়েক’শ নেতাকর্মী বাড়ি ছাড়া। যারা শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ছিলো তাদের বিএনপির পেন্ডিং মামলার লিস্টে নাম উঠেছে। ১৪৬ আসনে মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টি উন্মুক্ত প্রার্থী দিয়েছিলো। তবে নির্বাচনের একদিন আগে পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ঘোষণা দেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীকে সমর্থন দেয়ার জন্য। এরপর অনেক লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী সমর্থন দিয়ে সড়ে দাঁড়ালেও কেউ কেউ লড়াই চালিয়ে যান।

তাদের মধ্যে একজন মানিকগঞ্জ-৩ আসনে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী জহিরুল আলম রুবেল।  সভায় রুবেল তার বক্তব্যে বলেন, শত শত নেতাকর্মী বাড়ি ছাড়া। যারা শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে ছিলো তাদের বিএনপির পেন্ডিং মামলার লিস্টে নাম উঠেছে। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত মাঠে ছিলাম। নির্বাচনের আগের দিন সড়ে দাঁড়ালে ৫ কোটি টাকা পেতাম। অনেক অফার আসছে ওইদিকে তাকাই নাই। দল করতে চাই। দলের হয়ে অন্যদল করা সম্ভব নয়।

এ সময় তিনি পার্টির মহাসচিবকে পরামর্শ দিয়ে বলেন, দলের ত্যাগী নেতাদের দিয়ে দল করা সম্ভব। দল টিকিয়ে রাখতে হলে সাপোর্ট দিতে হবে। চাইছিলাম নিরপেক্ষ নির্বাচন। কথা বললে আপনাদের সমস্যা হবে, আমার সমস্যা হবে। মহাজোটে থেকে জাপার কি লাভ হলো?

প্রচণ্ড ক্ষোভ নিয়ে তিনি বলেন, কঠিন বাস্তবতা নেতাকর্মীরা বাড়ি ছাড়া। তারা ছেলেমেয়ে ছাড়া, তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, এখন পর্যন্ত খুলতে পারে নাই। আগামী ৫ বছর এমনটা দেখতে হবে। 

মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের লাঙ্গলের প্রার্থী গোলাম মো. রাজু বলেন, ভেবেছিলাম গত পরশুদিন দল করতে পারবে কিনা। দলের সুনাম থাকবে কিনা। কিন্তু আল্লাহ মুখ তুলে তাকিয়েছেন। তিনি পার্টির নেতাকর্মীদের দিকে নজর দেওয়ার অনুরোধ জানান।

এদিকে জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান আলমগীর সিকদার লোটোন বলেন, জাতীয় পার্টির বয়স ৩৩ আমরা পার্টি করি ৩৫ বছর। যাদের কারণে জাতীয় পার্টি ক্ষমতার হস্তান্তর করেছে তাদের বারবার মহাসচিব করেছে। একজন আশ্রাফ, একজন আলমগীর আসেনি।

জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা মান্নান সুর মিলিয়ে বলেন, দলের কোন অনুষ্ঠান হলে আমাকে জানানো হয় না। আমি নিজ থেকে আসি। অথচ ৩৩ বছরের বেশি সময় ধরে জাতীয় পার্টির সঙ্গে রাজনীতি করি। এভাবে দল টিকিয়ে রাখা যায় না।

পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী বলেন, দলে একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আমি। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলাম। অথচ মূল্যায়ন নেই। আজকে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দলের পতাকা আমি একাই উত্তোলন করেছি। সে সময় সঙ্গে কেউ ছিল না। এই আলোচনার সভার আয়োজন করা হয়েছে এ জন্য আমি ধন্যবাদ জানাই।

নেতাদের এমন ক্ষোভের মুখে জাপা মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ১২৯টি আসনে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীদের নির্যাতন করা হয়েছে আপনাদের কাছে থেকে শুনেছি। এর জন্য দুঃখিত।

তিনি বলেন, পার্টির চেয়ারম্যানের নির্বাচন আমাকে করতে হয়েছে। নিজের নির্বাচন করতে হয়েছে। আরো কয়েকজনের নির্বাচন আমাকে করতে হয়েছে। এসব কারণে সবার খোঁজ নিতে পারি নাই। শুনেছি, অনেকে নির্যাতিত হয়েছেন।

বাড়িতে থাকতে পারেন নাই। পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়েছে। নানাবিধ সমস্যা হয়েছে। এমন কথা উল্লেখ করে রাঙা বলেন, যারা পরাজিত হয়েছেন তাদের সঙ্গে আলোচনা করবো। দলের লোকদের প্রার্থী হওয়া উচিত। এ বিষয়ে দলের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলবো।

রাঙ্গা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, দলের চেয়ারম্যানের কোনো ভুল নেই। কিন্তু তাকে যারা ভুল বুঝায় তাদের বিচার করা হবে। বিএনপির মতো মামলা না হলেও জাতীয় পার্টির নেতারা অনেক নিঘৃত হয়েছে। মহাজোটের উন্মুক্ত আসনে জাতীয় পার্টির নেতারা কেন লাঞ্ছিত হয়েছে তা জানার চেষ্টা করবে বলে আশ্বাস দেন জাপা মহাসচিব রাঙ্গা। এ সময় মহাসচিব এসব সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৭১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০১৯
এমএএম/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
ksrm
প্রয়োজনে নিজে থানায় গিয়ে ওসিগিরি করবো
নিজের পোষা সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু
পেঁয়াজ পাইকারিতে ৬০, খুচরায় ৬৭
১৮ লাখ টাকার জালনোটসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত


‘এক ভিলেন ২’ করবেন জন আব্রাহাম?
পুলিশকে হতে হবে জনবান্ধব: প্রধানমন্ত্রী
দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীদের রুখতে হবে
শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করবে ছাত্রলীগ
গজারিয়ায় বাসচাপায় বৃদ্ধের মৃত্যু, চালক আটক