ঢাকা, রবিবার, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৯ আগস্ট ২০২০, ১৮ জিলহজ ১৪৪১

রাজনীতি

লক্ষ্মীপুরে ভোটযুদ্ধে নেই মহাজোটের তিন এমপি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০১৮
লক্ষ্মীপুরে ভোটযুদ্ধে নেই মহাজোটের তিন এমপি লক্ষ্মীপুরের বর্তমান তিন সংসদ সদস্য

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে মহাজোটের তিন সংসদ সদস্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেই। এদের মধ্যে দুইজন দলের মনোনয়নবঞ্চিত; অন্যজন নির্বাচনের মাঝ পথে এসে নিজেই সরে দাঁড়িয়েছেন।

এ তিন সংসদ সদস্য হলেন—লক্ষ্মীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য লায়ন এম এ আউয়াল, লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নোমান ও লক্ষ্মীপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

রামগঞ্জ আসনের লায়ন এম এ আউয়াল দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তরিকত ফেডারেশন থেকে মহাজোটের প্রার্থী হয়ে নির্বাচিত হন।

তিনি তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিব ছিলেন। কয়েক মাস আগে তিনি দলের পদ হারিয়েছেন। দল থেকে মনোনয়ন না পেয়ে জাকের পার্টি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দেন এম এ আউয়াল। পরবর্তীতে ঋণখেলাপির দায়ে তার মনোনয়ন বাতিল হয়। তার আসনে মহাজোটের প্রার্থী হিসাবে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন আনোয়ার হোসেন খান।

জোটগত কারণে বিকল্পধারার মহাসচিব, যুক্তফ্রন্টের নেতা মেজর (অব.) আবদুল মান্নান লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসন থেকে মহাজোটের মনোনয়নে নৌকা প্রতীকে ভোট করছেন। যে কারণে বাদ পড়েছেন এমপি মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

এদিকে, মাঝ পথে এসে ভোটের ট্রেন থেকে ছিটকে গেছেন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের মহাজোটের প্রার্থী; দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত
সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নোমান।

লোভী, সুযোগসন্ধানী নেতাদের অবৈধ গোপন তৎপরতা, আঁতাত ও স্বতন্ত্রপ্রার্থীর প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করে নির্বাচনে বহাল থাকায় তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে এক লিখিত বিবৃতিতে জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে মোহাম্মদ নোমান বলেন, নিজ দল জাতীয় পার্টির (জাপা) অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক অস্থিরতা, লক্ষ্য নির্ধারণে অনিশ্চয়তা, কেন্দ্রীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয় ও সিদ্ধান্তহীনতাকে দায়ী করেছেন।

শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী খোকন বিষয়টি বাংলানিউজকে জানান, জাপা থেকে তিনি কোনো সহযোগিতা পাচ্ছেন না। এ আসনে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকলেও আওয়ামী লীগের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি নিরসনের কোনো উদ্যোগ নেয়নি তার দল। যে কারণে মহাজোটের লাঙ্গলের প্রার্থী সংসদ সদস্য নোমান নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

সংসদ সদস্য নোমান চিঠিতে লিখেছেন, মহাজোটের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংশয়, সন্দেহ, অবিশ্বাস ও বিভ্রান্তি তৈরি হওয়া এবং লোভী সুযোগসন্ধানীদের অবৈধ গোপন তৎপরতা ও আঁতাত করা, কেন্দ্রীয় সহযোগিতা না পাওয়া ইত্যাদি কারণে আমি নির্বাচন থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

সংসদ সদস্য নোমান ছাড়া এ আসনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন ঐক্যফন্ট সমর্থিত জেলা বিএনপির প্রার্থী আবুল খায়ের ভূঁইয়া ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আপেল শহিদুল ইসলাম পাপুল।

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুরে সংসদীয় আসন চারটি। গেলো সংসদ নির্বাচনে চারটি আসনই মহাজোটের প্রার্থীরা নির্বাচিত হন। তাদের মধ্যে এবারের নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসন থেকে লড়ছেন বিমানমন্ত্রী এ কে এম শাহাজাহান কামাল। অন্য তিন আসনের এমপি ভোটযুদ্ধে নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৮
এসআর/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa