সহিংসতা কমলেও বন্ধ হয়নি অনিয়ম, ক্ষুব্ধ ইসি

ইকরাম-উদ দৌলা, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ‘অনিয়ম-সহিংসতা’ দেখতে চান না, নির্বাচন কমিশনে (ইসি) পাঠানো প্রধানমন্ত্রীর এমন বার্তার পর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সংহিসতা কমে এসেছে।

ঢাকা: ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ‘অনিয়ম-সহিংসতা’ দেখতে চান না, নির্বাচন কমিশনে (ইসি) পাঠানো প্রধানমন্ত্রীর এমন বার্তার পর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সংহিসতা কমে এসেছে। তবে ভোটের আগের রাতে সিলমারাসহ নির্বাচনী অনিয়ম অব্যাহত রয়েছে। আর এ নিয়ে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা মাঠ পর্যায় থেকে প্রতিবেদন পাঠাচ্ছেন না।

এই অবস্থায় নির্বাচন কমিশনার অসহায় হয়ে পড়েছেন। শনিবার (২৩ এপ্রিল) ভোটগ্রহণ শুরুর ঘণ্টা দুয়েক পরেই প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের বৈঠকে বসেন।

সূত্র জানিয়েছে, বৈঠকে সিইসিসহ অন্য কমিশনাররা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বিভিন্ন সোর্স থেকে অনিয়মের অভিযোগ এলেও ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা অনিয়মের সঠিক চিত্র তুলে ধরছেন না- এমনটিই আলোচনায় উঠে এসেছে। এজন্য কমিশন দলগুলোর বিদ্রোহী প্রার্থীদেরও দায়ী করছেন। নির্বাচন কমিশনারদের মতে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর সহিংসতা কমে এলেও অনিয়ম হচ্ছে। আর এসব করছে বিদ্রোহী প্রার্থীরা।

গত বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ সিইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে প্রধানমন্ত্রীর বার্তাটি পৌঁছে দিয়েছিলেন। ওইদিন ইসি থেকেও দলীয় নেতাকর্মীদের বাড়াবাড়ি না করার নির্দেশনা দিতে বলেছিলো আওয়ামী লীগকে।

** ইসিকে আ’লীগ: প্রধানমন্ত্রী ইউপি নির্বাচনে অনিয়ম চান না

এদিকে ইসি কর্মকর্তারা জানান, শনিবার দেশের ৬১৪ ইউপিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয় সকাল ৮টায়। এরপর নোয়াখালী, শেরপুর, কুমিল্লাসহ বেশকিছু এলাকায় অনিয়মের খবর এসেছে।

নির্বাচন কমিশনার মো. শাহ নেওয়াজ বৈঠক থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, অনিয়মের কারণে কোথাও কোথাও ভোটগ্রহণ স্থগিত করতে হয়েছে। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নির্বাচন কমিশনার সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বার্তা পাওয়ার পরে আমরা মনে করেছিলাম ব্যালট পেপার ছিনতাই কমবে। কিন্তু ঝামেলা তো করেই যাচ্ছে।

দেশের প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউপিতে এবার ছয় ধাপে ভোটগ্রহণ করছে নির্বাচন কমিশন। ইতোমধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে তৃতীয় ধাপের ভোট। আগামী ৭ মে চতুর্থ ধাপ, ২৮ মে পঞ্চম ধাপ ও ৪ জুন ষষ্ঠ ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনের দিন সহিংসতায় অন্তত ৬ জন নিহত হন। এছাড়া নির্বাচনে অনিয়মের কারণে দুই ধাপে অন্তত ৮০টি ভোটকেন্দ্র স্থগিত হয়েছিলো। আর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে এ রিপোর্টে লেখা পর্যন্ত কোথাও কেউ নিহত হননি। এখন পর্যন্ত কেবল তিনটি কেন্দ্র স্থগিতের প্রতিবেদন এসছে মাঠ পর্যায় থেকে, যদিও প্রকৃত চিত্র ভিন্ন বলে জানান ইসি কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০১৬/আপডেট: ১৫৪৭ ঘণ্টা.
ইইউডি/এটি

Nagad
বিপিও উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের আহ্বান পলকের
বিনিয়োগ আকর্ষণে নীতিমালা সংস্কারের পরামর্শ
ভুয়া চিকিৎসকসহ ৩ জনকে কারাদণ্ড, হাসপাতাল সিলগালা
পশ্চিমবঙ্গে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,৫৬০ জন
নভোএয়ারে ভ্রমণ করলে ফ্রি কাপল টিকিট


‘টাউট’ শহীদুলের আইন পেশা, আছে মানবাধিকার সংগঠন!
সব বিভাগে ভারী বর্ষণের শঙ্কা, বন্যার অবনতি
অর্ধেক দামে মিলবে কৃষি যন্ত্রপাতি, একনেকে প্রকল্প
খুলনায় নতুন করোনা রোগী শনাক্ত ৭৩, মোট ৩১০৮
মানবপাচার-অর্থপাচার রোধে প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছা