php glass

প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে চান স্বরূপকাঠির গোলাম কবির

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে সীমাবদ্ধতার মধ্যেও যতটুকু উন্নয়নকাজ করা সম্ভব ততটুকু মানসম্মতভাবে করতে চাই। তবে সবক্ষেত্রে নিশ্চিত করা হবে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা। পৌরসভার সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন না কোনো নাগরিক।

পিরোজপুর: নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে সীমাবদ্ধতার মধ্যেও যতটুকু উন্নয়নকাজ করা সম্ভব ততটুকু মানসম্মতভাবে করতে চাই। তবে সবক্ষেত্রে নিশ্চিত করা হবে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা। পৌরসভার সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন না কোনো নাগরিক।
 
সম্প্রতি বাংলানিউজকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে এ কথাগুলো বলেন পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি পৌরসভার মেয়র মো. গোলাম কবির।

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পৌর এলাকার ৯টি ওয়ার্ডে কাঁচা সড়ক পাকাকরণ, বেহাল সড়কগুলোর সংস্কার, ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ এবং ড্রেনেজ নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি। এছাড়া পৌর এলাকার পানি সরবরাহ লাইন বর্ধিত ও গণশৌচাগার নির্মাণ করা হবে।

স্বরূপকাঠি শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য পরিকল্পিতভাবে একটি মাস্টার প্ল্যানও হাতে নেওয়ার ইচ্ছা রয়েছে বলে মেয়র জানান।

নাগরিকদের সুযোগ-সুবিধা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি সময় পেলে ওয়ার্ডগুলোতে ঘুরে বেড়াই। তখন পৌরসভার বিভিন্ন এলাকার সমস্যা ও নাগরিকের দূর্ভোগ স্বচক্ষে দেখে সমাধানের উদ্যোগ নেই। মানুষের করা অভিযোগগুলো শুনে দ্রুত সমাধান করে দেই।

মাদক ও বাল্যবিয়ে মুক্ত পৌরসভা গড়তে এবং বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে তিনি বলেন, পৌর এলাকা মাদকমুক্ত রাখতে আমি সবসময় সতর্ক রয়েছি। মাদকের ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে হলে সুশিক্ষিত সুনাগরিক হতে হবে। এজন্য আমাদের সন্তানদের লেখাপড়া ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে চাই।

পিরোজপুরের ব্যবসা-বাণিজ্যে সমৃদ্ধ ও কাঠ শিল্পের জন্য বিখ্যাত স্বরূপকাঠি পৌরসভার চতুর্থ মেয়র মো. গোলাম কবির। তিনি স্বরূপকাঠি পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও  স্বরূপকাঠি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কাজে জড়িত রয়েছেন।

১৯৮৫ সালে স্বরূপকাঠি সরকারি কলেজে পড়াশুনা অবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যোগ দেন গোলাম কবির। ১৯৯২ সালে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০২ সালে স্বরূপকাঠির পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হন। ২০১০ সাল থেকে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্বে রয়েছেন।

এর আগে ১৯৯৯ ও ২০১৩ সালে পৌরসভার মেয়র পদে (উপনির্বাচন) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন তিনি।

২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে ৭ হাজার ৩২৬ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মো. শফিকুল ইসলাম ফরিদ পান ‍মাত্র ১ হাজার ৭৭৯ ভোট।

চলতি বছরের ২৫ জানুয়ারি পৌরসভার চতুর্থ মেয়র হিসেবে শপথ নেন গোলাম কবির। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৬
এসআর

আসামি ধরতে গিয়ে হামলায় ৩ পুলিশ জখম
আড়িয়াল বিলে বিমানবন্দরের সম্ভাবনা বহু দূরে চলে গেছে 
রাস্তায় আন্দোলন করে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা যাবে না
বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ এখন ভালো: গণপূর্তমন্ত্রী
মুক্তি পেল দণ্ডিত ১২১ শিশু


বড় ভাইকে গলা কেটে হত্যা, সৎভাই আটক
উন্মোচিত হলো নুমাইর আতিফ চৌধুরীর ‘বাবু বাংলাদেশ’
চুরির দায়ে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের ৫ সদস্য বরখাস্ত 
বিএনপি জাতীয়তাবাদী শক্তির প্লাটফর্ম: গয়েশ্বর
রাজধানীতে র‍্যাবের অভিযানে আটক ২