php glass

পৌর নির্বাচন

ময়মনসিংহের প্রার্থী বাছাইয়ে বিপাকে আ’লীগ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
ময়মনসিংহের ৯ পৌরসভায় একক প্রার্থী বাছাই করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছে জেলা আওয়ামী লীগসহ দায়িত্বপ্রাপ্ত দলের নেতারা।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের ৯ পৌরসভায় একক প্রার্থী বাছাই করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছে জেলা আওয়ামী লীগসহ দায়িত্বপ্রাপ্ত দলের নেতারা।

প্রতিটি পৌর এলাকায় ক্ষমতাসীন দল থেকে একাধিক মনোয়ন প্রত্যাশি মাঠে থাকায় এবং নির্বাচনী সিদ্ধান্তে অটল থাকায় হিমশিম খেতে হচ্ছে দলটির শীর্ষ নেতাদের।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, সোমবারের (৩০ নভেম্বর) মধ্যে একক প্রার্থী বাছাই করে কেন্দ্রে পাঠাতে হবে। আর এ নির্দেশনা মাথায় রেখেই রোববার (২৯ নভেম্বর) সকাল থেকে নগরীর শিববাড়ি জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জরুরি সভায় বসে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। কিন্তু সন্ধ্যা নাগাদ কোনো সিদ্ধান্তে যেতে পারেননি। 

গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল থেকে মনোনয়ন চাইছেন বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য আবু কাউসার চৌধুরী রন্টি, সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম হবিসহ আরো বেশ কয়েকজন প্রার্থী। ইতোমধ্যে পৌর ও জেলা আওয়ামী লীগের কাছে রন্টির নাম প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম স্বাধীনতা বিরোধীর সন্তান বলে অভিযোগ করেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য আবু কাউসার চৌধুরী রন্টি। তাকে মনোনয়ন দিলে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা আন্দোলনে যাবে বলেও হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন রন্টি।

ত্রিশাল পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে রয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান মেয়র এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নবী নেওয়াজ সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন আকন্দ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবুল কালাম।

এর মধ্যে মেয়র আনিস রোববার (২৯ নভেম্বর) দিনভর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে শোডাউন করেন।

ভালুকায় আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন চাইছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র ডা. একে.এম মেজবাহ্ উদ্দিন কাইয়ুম, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক সাদিকুর রহমান তালুকদারসহ বেশ কয়েকজন।

গফরগাঁওয়ে দলীয় মনোনয়ন চাইছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি এস.এম.ইকবাল হোসেন সুমন ও বর্তমান মেয়র অ্যাডভোকেট কায়সার আহমেদ। তবে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল জানান, উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং তিনি নিজে ইকবাল হোসেন সুমনের নাম প্রস্তাব করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের কাছে।

নান্দাইলে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীতায় রয়েছেন সাবেক পৌর মেয়র রফিক উদ্দিন ভূঞা, ছাত্রলীগ সভাপতি হাফিজুর রহমান রিপনসহ বেশ কয়েকজন।

একই অবস্থা ফুলপুর পৌরসভাতেও। এখানেও দু’বারের নির্বাচিত বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাজাহান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. খলিলুর রহমানসহ বেশ কয়েকজনের মাঝে মনোনয়ন নিয়ে চলছে যুদ্ধ।

মুক্তাগাছায় বর্তমান পৌর মেয়র আব্দুল হাই আকন্দ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল সরকারের মাঝে মনোনয়ন নিয়ে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে। এর বাইরেও রয়েছেন আরো জনা পাঁচেক প্রার্থী।

ফুলবাড়িয়ায় মেয়র পদে বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া ও শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তুফার মাঝে প্রতিযোগিতা চলছে।

ঈশ্বরগঞ্জে আওয়ামী লীগ থেকে বর্তমান পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হবিসহ মেয়র প্রার্থীতায় রয়েছেন ৫ জন।

ক্ষমতাসীন দলের একক প্রার্থী বাছাইয়ে হিমশিম খাওয়া প্রসঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক হোসাইন জাহাঙ্গীর বাবু বলেন, একক প্রার্থী বাছাইয়ে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। দলের দায়িত্বশীল নেতারা আলোচনা সাপেক্ষেই একক প্রার্থী বাছাইয়ের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০১৫
বিএস

‘যুদ্ধে হিট অ্যান্ড রানে বিশ্বাসী ছিলাম’
ভারতে সেনা ক্যাম্প থেকে রাইফেল-গুলি চুরি, জরুরি সতর্কতা
মূল্য নিয়ন্ত্রণে ভারতের বাজার আগাম পর্যবেক্ষণ জরুরি
শিক্ষাঙ্গনে নৈরাজ্যের জন্য অসুস্থ রাজনীতি দায়ী
যেখানে মেসি-সুয়ারেজের চেয়ে এগিয়ে গ্রিজম্যান


চাকরির আবেদনে বয়সসীমা বাড়ানোর দাবি
রাঙ্গুনিয়ায় নুরুন্নাহার স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা
সোনার স্বপ্ন জাগিয়েও পারলেন না আঁখি
ঘটছে দুর্ঘটনা, তবুও উল্টো পথে চলছে গাড়ি
কাতারকে হারিয়ে গালফ কাপের ফাইনালে সৌদি আরব