১৪ দলের সভার আগেই সমন্বয়কের কাছে চিঠি পাঠাচ্ছে ওয়ার্কার্স পার্টি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সভা। ওই সভার আগেই ১৪ দলের সমন্বয়ক আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর কাছে চিঠি পাঠাচ্ছে জোটের অন্যতম শরিক ওয়ার্কার্স পাটি।

ঢাকা: আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সভা। ওই সভার আগেই ১৪ দলের সমন্বয়ক আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর কাছে চিঠি পাঠাচ্ছে জোটের অন্যতম শরিক ওয়ার্কার্স পাটি।

এ চিঠির মূল বক্তব্য হলো, শুধু আলোচনার জন্য ১৪ দলের সভা নয়। সভায় যেসব সিদ্ধান্ত হয় সেসব বাস্তবায়ন না হওয়ায় সভাটি অনেকটাই গুরুত্ব হারায়। দ্রব্যমুল্য, আইন-শৃঙ্খলা, সদ্য সমাপ্ত পৌর নির্বাচন বিষয়ে ওয়ার্কার্স পার্টির বক্তব্য তুলে ধরা হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

সূত্রটি আরও জানায়, বৃহস্পতিবার এ চিঠি পাঠানো হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওয়ার্কার্স পার্টির এক নেতা বাংলানিউজকে বলেন, আসলে ১৪ দলের সমন্বয়কের কাছে চিঠি পাঠানো আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত। ১৪ দলের সভায় অনেক কথাই হয়, অনেক সিদ্ধান্তই হয় কিন্তু আজ পর্যন্ত কোনোটাই বাস্তবায়ন হয়নি।

সর্বশেষ গত ২৪ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ১৪ দলের সভার আগে ২৮ নভেম্বর একটি সভা হয়। ওই সভায় ১৪ দলকে জেলা পর্যায়ে সক্রিয় করা, বিভিন্ন পর্যায়ে আইন-শৃঙ্খলাসহ বিভিন্ন কমিটিতে ১৪ দলের শরিকদের প্রতিনিধি রাখা, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের পক্ষ্যে ঢাকায় বড় ধরণের গণজমায়েত করাসহ বেশ কিছু সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু এর কোনোটিই বাস্তবায়ন হয়নি।

এছাড়া সর্বশেষ পৌরসভা নির্বাচন মহাজোটগতভাবে করার কথা বলে পরবর্তিতে সেটাও হয়নি। এমনকি এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ জোট শরিকদের একরকম উপেক্ষাই করেছে।

এছাড়া দ্রব্য মুল্যের উর্ধ্বগতি, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিসহ সাম্প্রতিক কিছু বিষয় চিঠিতে থাকবে।

এই বিষয়গুলো যাতে ৬ ফেব্রুয়ারির সভায় উপস্থাপিত ও আলোচনা হয় এবং এসব বিষয়ে আওয়ামী লীগের পক্ষ্য থেকে যাতে সুস্পষ্ট বক্তব্য আসে সে কারণেই চিঠি দেওয়া হচ্ছে বলে ওয়ার্কার্স পার্টির এ নেতা জানান।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ইচ্ছা হলে জোটের সভা ডাকে। সেখানে তাদের উপস্থাপিত এজেন্ডা ছাড়া অন্য কোনো বিষয়ে আলোচনার সুযোগ থাকে না। এ কারণে আগে থেকে চিঠি দিয়ে অবহিত করা হবে।

এ দিকে মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে এ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ১৪ দলের সভার কথা জানানো হয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় দেশের সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয়ে আলোচনা হবে।

এই সভায় সংশিষ্ট সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য কেন্দ্রীয় ১৪-দলের সমন্বয়ক, আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জাতীয় সংসদের উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।

১৪ দলের সভা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এনামুল হক বাংলানিউজকে বলেন, সভা ডাকা হয়েছে বিষয়টি এখনো জানি না।

তবে জোটের সভা হলে দ্রব্যমুল্যের উর্ধ্বগতি, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির বিষয়গুলো আমরা তুলবো। জনজীবনের এই সংকটগুলো সরকার দূর করতে পারছে না। ১৪ দলের সভায় এ বিষয়গুলো বার বার আলোচনা হয়েছে কিন্তু সমাধান নেই।

তাছাড়া ১৪ দলের বেশ কিছু পূর্ব সিদ্ধান্ত আছে যার কোনো আস্তবায়ন নেই। সে বিষয়গুলোও আলোচনায় আসবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১১

Nagad
ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ
মালদ্বীপে বিক্ষোভের সময় ৩৯ বাংলাদেশি আটক
করোনা পরিস্থিতি ‘খারাপ থেকে আরও খারাপের’ দিকে যেতে পারে: হু
বগুড়ায় ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন
মুজিব শতবর্ষ ঘিরে ১০০ নদীর তীরে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি নোঙর’র


চালককে মারধরের পর অটোরিকশা ছিনতাই
আর্যবিশপ মজেস কস্তার মৃত্যুতে নওফেলের শোক
স্বল্প পরিসরে বেচাকেনা হচ্ছে, স্বপ্ন দেখছেন ব্যবসায়ীরা
‘সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ডে’ যুক্ত জায়েদ, প্রযোজক সমিতির শোকজ
মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখায় ৩ ফার্মেসিকে জরিমানা