php glass

আছি, থাকতে চাই স্রোতের সঙ্গেই...

503 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
হাঁটি হাঁটি পা পা করে ‘বাংলানিউজ’ আজ তার স্বর্ণালী পাঁচটি বছর পার করতে যাচ্ছে। অপার সম্ভাবনাময় ভবিষ্যতের স্বপ্নে পা রাখছে ছয় বছরে। শুরুর দিনটি থেকেই সঙ্গে রয়েছি। অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে ‘বাংলানিউজ’র সঙ্গে অনলাইন সাংবাদিকতায় তাই আজ আমারও পাঁচ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে।

রাজশাহী: হাঁটি হাঁটি পা পা করে ‘বাংলানিউজ’ আজ তার স্বর্ণালী পাঁচটি বছর পার করতে যাচ্ছে। অপার সম্ভাবনাময় ভবিষ্যতের স্বপ্নে পা রাখছে ছয় বছরে। শুরুর দিনটি থেকেই সঙ্গে রয়েছি। অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে ‘বাংলানিউজ’র সঙ্গে অনলাইন সাংবাদিকতায় তাই আজ আমারও পাঁচ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। আগের অভিজ্ঞতাটা ছিল পত্রিকার। ফলে আজকের উপলব্ধি আমার কাছে অন্য রকমেরই।

পত্রিকার পাতায় ছাপা হরফে নিজের নাম দেখে কার না ভালো লাগে, আমারও লাগতো। কিন্তু সেই মোহ ছেড়ে আসার সিদ্ধান্ত যে, এক রত্তিও ভুল হয়নি স্রোতের সঙ্গে থেকে আজ তার প্রমাণ পাচ্ছি। ভাবতেই ভালো লাগছে এতটা পথ তালে তাল মিলিয়ে চলতে পেরেছি ‘বাংলানিউজ’র সঙ্গে।    
 
রাজধানী থেকে গ্রামের প্রত্যন্ত মেঠো পথ। দেশ থেকে বিদেশ। প্রতিটি ক্ষেত্রেই আজ বাংলানিউজের ক্ষুরধার স্বচ্ছ সাংবাদিকতার বিস্তৃতি। দেশের একটি মাত্র নিউজ পোর্টাল; যেখানে প্রতিটি মুহূর্তেই চোখের সমানে ভেসে উঠছে মানুষের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, স্বপ্ন, অসহায়তা, কষ্ট ও বিপন্নতার প্রতিচ্ছবি। 

ন্যায়ের সঙ্গে সন্ধি আর অন্যায়ে প্রতিবাদ। শব্দের ছন্দে হৃদয়ের স্পন্দনে এক ঝাঁক তরুণ সংবাদকর্মী নিরন্তর ছুটে চলেছেন সত্যের সন্ধানে। দূরন্ত সাহস নিয়ে অসংকোচে প্রকাশ করে চলেছেন সবার আগে, সব কিছুর আগে। তাই মিডিয়ার এই ডামাডোলেও দেড়কোটি পাঠকের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছে বাংলানিউজ। সক্ষম হয়েছে ফেসবুকে ২৫ লাখ বন্ধুর মাইলফলক স্পর্শ করতে।

এসব কিছুর আবহে বুকের ভেতর তিল তিল করে যিনি বাংলানিউজকে এত অল্প সময়ে জনপ্রিয়তার চূড়ায় পৌঁছিয়েছেন তিনি হচ্ছেন, আমাদের মাননীয় এডির ইন চিফ আলমগীর হোসেন।

একজন কর্মবীর, যার নেতৃত্বে এই বিশাল কর্মজজ্ঞ। তার নিবিড় পর্যবেক্ষণ সার্বক্ষণিক। ঢাকার সেন্ট্রাল ডেস্কে থাকা একজন সংবাদকর্মী থেকে শুরু করে বিভাগীয় এবং গ্রামের একজন তৃণমূল সংবাদকর্মীর প্রতিও যার সমান দৃষ্টি, সমান গুরুত্ব। কেবল কর্মেই নয়, তিনি তার ¯েœহের পরশে সবাইকে যেন বেঁধেছেন একই পরিবারের বন্ধনেও। তাই বাংলানিউজকে আজ আমার পরিবার বলেই মনে করি বা নিজেকে বাংলানিউজ পরিবারের সদস্য হিসেবে ভাবতে গর্ববোধ করি। চলার পথে অপূর্ণতা থাকবেই। কিন্তু তার (মাননীয় এডির ইন চিফ) বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন আমার মত ক্ষুদ্র সংবাদকর্মীর প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রেরণা জুগিয়ে যাবে। শত বাধা আর প্রতিকূলতা স্বত্ত্বেও আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্ন-সারথি হয়ে থাকবে।

সগর্বে বলতে চাই- আমি আছি, থাকতে চাই স্রোতের সঙ্গেই। টেনে নিয়ে যাবে যতোদিন।
       
বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৭ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০১৫
এসএস/জেডএম

** বাংলানিউজ ও স্মৃতির ছেঁড়াপাতা

২০২০ সালের জুনের মধ্যেই নতুন ১৫ ট্রেন
ঢাবিতে ভর্তি: দেড় ঘণ্টার পরীক্ষায় এমসিকিউ ৭৫, লিখিত ৪৫
গুজবে সরকারবিরোধী পক্ষের যোগসূত্র পেয়েছে পুলিশ
সামাজিক নিরাপত্তায় ১৪ কোটি ইউরো দেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন
সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি


১০০ গান করবেন তারা
ডাক বিভাগে ৬৫ পদে নিয়োগ
গুজব ঠেকাতে সরকার কঠোর: কাদের
নিজেকে নয় উইলিয়ামসনকে সেরা মানছেন স্টোকস
সাগ‌রে ধরা পড়‌ছে ই‌লিশ, দেখা মিলছে বাজারেও