php glass

রুবেল-হ্যাপি সমাচার ও বাংলাদেশ

5529 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রুবেল হোসেন এবং নাজনীন আক্তার হ্যাপি

walton
বাংলাদেশিদের একটি বড় গুণ হলো, অন্যের দোষ গাওয়া! মানে নিজের খাবারের খবর নেই কিন্তু প্রতিবেশীর তরকারীতে যদি লবণ কম থাকে, তা পুরো এলাকা জুড়ে মাইক দিয়ে বলে বেড়ানোর স্বভাব আমাদের চিরকালের।

বাংলাদেশিদের একটি বড় গুণ হলো, অন্যের দোষ গাওয়া! মানে নিজের খাবারের খবর নেই কিন্তু প্রতিবেশীর তরকারীতে যদি লবণ কম থাকে, তা পুরো এলাকা জুড়ে মাইক দিয়ে বলে বেড়ানোর স্বভাব আমাদের চিরকালের।

ঠিক তেমনই ঘটেছে রুবেল-হ্যাপির বেলায়। বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম তাদের ঘটনা এমন ঢালাওভাবে প্রচার করা শুরু করেছে যে, অনেকের ঘুম হারাম হয়ে যাবার মতো। দিন কয়েক আগে সেভেন মার্ডারের ফোনালাপ একটি গণমাধ্যম প্রকাশ করলে তা নিয়ে ব্যাপক হইচই সৃষ্টি হয়। আর এবার তারাই প্রকাশ করলো রুবেল-হ্যাপির ব্যক্তিগত আলাপের একটি অডিও। তাহলে উভয় ক্ষেত্রেই কি তারা সমপরিমাণ অপরাধী?

একটি খেলোয়াড়কে ব্যক্তিগত জীবনে সাংসারিক হতে হবে এমন কথা অযৌক্তিক। বিশ্বের অনেক নামী দামি খেলোয়াড় তাদের ব্যক্তিগত জীবনে নানা কুকর্মে জড়িত।

কিন্তু সেটা আমাদের মাথা ব্যথা নয়। প্রশ্ন হচ্ছে, রুবেল কি খেলার মাঠে কোনো অন্যায় করেছেন? না। তার ব্যক্তিগত জীবনের জন্য কি মাঠে পারফরম্যান্স খারাপ হয়েছে? না। বলা ভালো, এখন পর্যন্ত চোখে পড়েনি। বরং, ব্রেকথ্রু বোলার হিসেবে তিনি এখন অনেক ভালো করছেন। পাশাপাশি লোয়ার অর্ডার হিসেবেও রান পাচ্ছেন। তাহলে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমাদের এত মাথা ব্যথা কেন!

অজি ক্রিকেটার শেন ওয়ার্ন বা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অনেক অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু মাঠে সেটার প্রভাব কখনই পড়েনি। তারা তাদের দেশের জন্য সেরা খেলাটাই দিয়ে গেছেন সবসময়। বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মার কাহিনী নিয়েও গণমাধ্যমে তোলপাড়। কিন্তু ভারতীয় নাগরিকদের এই কাহিনীর চেয়ে কোহলির খেলার প্রতি নজর বেশি।

সামনে বিশ্বকাপ। আমাদের সবার উচিত এসব আজেবাজে খবরের পেছনে না ছুটে খেলোয়াড়দের বেশি করে অনুপ্রেরণা দেওয়া। আর খেলোয়াড়দেরও সবকিছু বাদ দিয়ে খেলার প্রতি নজর দেওয়া।

তাই বিশ্বকাপের আগে এ ধরনের নানা অতিরঞ্জিত শিরোনামের কাহিনী দিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটকে কলুষিত করা উচিত নয়। যে ক্রিকেটের মাধ্যমে বিশ্ব আমাদের জেনেছে, সেই ক্রিকেটকে কিভাবে আরও উন্নয়নের শিখরে নিয়ে যাওয়া যায়, তা নিয়ে পরিকল্পনা করা উচিত।

মাহমুদ খায়রুল: সাংবাদিক

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৪

মায়ের ওপর অভিমান, রাজধানীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
নোয়াখালীতে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে প্রাণ গেলো দু’জনের
প্রণব মুখার্জি-খান আতার জন্ম
খালেদার মুক্তির জন্য স্বেচ্ছায় কারাভোগে রাজি ফেনী বিএনপি
‘মাথাপিছু আয় ৬০০০ ডলারের আগেই সবার কাছে গাড়ি থাকবে’


দলের জন্য সবটুকু অভিজ্ঞতা ঢেলে দেবেন গিবস
কর দিতে হয়রানি হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী
মিয়ানমারে গণহত্যার বিচার শুরু, সন্তুষ্ট রোহিঙ্গারা
বিশ্বসভ্যতার ইতিহাসই মানবাধিকার অর্জনের ইতিহাস
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা আয়োজন সিএমপির