ইচ্ছাকৃত রোজা না রাখা ও ভাঙার বিধান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

...।

walton

প্রশ্ন: আমি একজন সাধারণ মানুষ। আমি আমার জীবনের কয়েক রমজানের রোজা রাখিনি। এ ছাড়া কয়েকটি রোজা রেখে অপারগ অবস্থায় আর কিছু ইচ্ছাকৃত ভেঙে ফেলেছি। বর্তমানে আমার অনুভূতি এসেছে। তাই আমি জানতে ইচ্ছুক, আমার করণীয় কী? —আহসানুল টুটুল, মিরপুর।

উত্তর: প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর থেকে অদ্যাবধি রমজানের যত রোজা ছুটে গেছে তার জন্য তাওবা করবে এবং আনুমানিক হিসাব করে তার কাজা আদায় করতে হবে। কাজা লাগাতার করা আবশ্যকীয় নয়। বার্ধক্য বা কোনো কারণে কাজা না করতে পারলে ফিদিয়া দেবে। স্বাভাবিক অবস্থায় ইচ্ছাকৃত যত রোজা রেখে নষ্ট করা হয়েছে প্রত্যেক রোজার জন্য ভিন্ন ভিন্ন ৬০টি করে রোজা কাফফারা হিসেবে রাখতে হবে। রোজা রাখার সামর্থ্য না থাকলে প্রত্যেক রোজার জন্য এক ফিতরা পরিমাণ কাফফারা দেবে। (হিন্দিয়া : ১/২০৫, আদ্দুররুল মুখতার : ২/৪০৯, রদ্দুল মুহতার : ২/৪১২, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ২/৪৬৪)

সমাধান: ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৬ ঘণ্টা, মে ১০, ২০২০
এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: নারায়ণগঞ্জ করোনা ভাইরাস
করোনা রোগীর সেবা ও দাফন-কাফন আমাদের দ্বীনি দায়িত্ব
আমতলীর পৌর মেয়রের ওপর হামলা, চাপাতিসহ ৩ জন আটক
রায়সাহেব বাজারে গোডাউনে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত কেমিক্যালে
ধর্মপাশায় বজ্রপাতে জেলের মৃত্যু
কানাডায় বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে ট্রুডো


যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের যোগদান অনলাইনে
‘করোনা রোধে নারায়ণগঞ্জের সিস্টেমটা সারাদেশে প্রয়োগ হবে’
বর্ণ-বৈষম্য দূরীকরণে ১০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেবেন জর্ডান
ফেনীতে করোনা আক্রান্ত বাড়লেও তোয়াক্কা নেই স্বাস্থ্যবিধির
করোনা উপসর্গে মৃত্যু: পরিবার পিছুহটায় দাফন করলো প্রশাসন