রমজানে সুস্থ থাকার ৫ দাওয়াই

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

খেজুর। ছবি: সংগৃহীত

walton

সুস্থ থাকার জন্য নিয়ম মেনে চলা অত্যন্ত জরুরি একটি বিষয়। আর সাম্প্রতিক সময়ে করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় সবাই ঘরবন্দি অবস্থায় আছেন। এমনই একটি সময়ে এবার পবিত্র রমজান পালিত হচ্ছে বলে সুস্থতার জন্য আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকা চাই।

এই সময়ে রোজা রেখে কীভাবে নিজেকে সুস্থ রাখবেন সে বিষয়ে এক চিকিৎসকের পরামর্শ তুলে ধরেছে হোয়াটস গোয়িং অন কাতার (ডব্লিউজিওকাতারডটকম)। চলুন দেখা নেওয়া পরামর্শগুলো-

অতিরিক্ত খাবেন না

ইফতার, তারাবীহর নামাজের পর, মধ্যরাত এবং সেহরিতে খাবারের সময়কে এ চার ভাগে ভাগ করে নিন। এসময়ে কোনোভাবেই অতিরিক্ত খাওয়া চলবে না।

খাবার গ্রহণে সতর্ক থাকা চাই

সারাদিন না খেয়ে থেকেছেন তাই ক্ষুধা থাকবে এটা স্বাভাবিক। তাই বলে সব খাবার ইফতারের সময় একসঙ্গে খাওয়া ঠিক নয়। রোজা ভাঙবেন এক বা তিনটি শস্যদানা পরিমাণ যেকোনো কিছু দিয়ে। সেটা খেজুরও হতে পারে। এরপর নির্দিষ্ট পরিমাণ পানি পান করে নামাজ আদায় করে নিন। এসময়ের মধ্যে পাকস্থলীকে বিশ্রাম নিতে দিন যেন সে পুনরায় খাবার গ্রহণে উদগ্রীব থাকে। নামাজ আদায় শেষে স্যুপ বা সবজি সালাদ খেতে পারেন যা আপনার ক্ষুধা নিবারণ করতে সক্ষম। একইসঙ্গে সামান্য ক্যালরি আছে এমন কিছু খেতে পারেন। এরপর আপনি প্রোটিনযুক্ত মূল খাবার (গরুর মাসং, মুরগির মাংস বা মাছ) গ্রহণ করুন। সঙ্গে রাখতে পারেন ভাত বা রুটি। তবে এগুলোর কোনোটাই অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া যাবে না। এরপর তারাবীহর নামাজ শেষে ফল বা গরুর দুধ পান করতে পারেন। এরপর মধ্যরাতে কম পরিমাণ সবজি, ভাত বা জুস খেতে পারেন। সেহরিতে খাবারের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটি আপনাকে সারাদিনের জন্য শক্তি যোগাবে। তাই এসময় অবশ্যই ফাস্ট ফুড এড়িয়ে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণ করতে করুন।

পান করুন ৮ গ্লাস পানি

রোজাদার ব্যক্তিকে অবশ্যই ইফতারের পর থেকে সেহরির আগ পর্যন্ত অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করতে হবে। একইসঙ্গে লবণ, চর্বিযুক্ত খাবার, ভাজা খাবার ও মিষ্টি খাওয়া এড়িয়ে চলতে হবে।

অংশ নিন বাড়ির কাজে।

ঘুমাতে হবে পর্যাপ্ত

রমজান মাস আসলেই দেখা যায় মানুষ খুব দ্রুত তার লাইফস্টাইল পরিবর্তন করে ফেলেন। রাতে তারা জেগে থাকেন দিনে ঘুমান। এটা ঠিক না। কারণ হুট করে সাময়িক সময়ের জন্য লাইফস্টাইল পরিবর্তন করাটা হিতে বিপরীতও হতে পারে। সুতরাং রাতের একটা সময় অবশ্যই ঘুমান আর বাকিটুকু দিনে। তবে, তা যেন পর্যাপ্ত হয়।

হাঁটাচলার পাশাপাশি অংশ নিন বাড়ির কাজে

পুরো এক মাস রোজা রাখার কারণে এসময়ের মধ্যে শরীরচর্চা করার প্রবণতা একেবারেই যে থাকবে না সেটা স্বাভাবিক। তাই রোজা রেখে টিভির সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় নষ্ট না করে হাঁটাচলা করুন এবং বাড়ির কাজে অংশ নিন। যা আপনাকে শক্তির যোগান দেবে এবং সহযোগিতা করবে ফিটনেস ধরে রাখতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৭, ২০২০
এইচএডি/

রায়সাহেব বাজারে গোডাউনে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত কেমিক্যালে
ধর্মপাশায় বজ্রপাতে জেলের মৃত্যু
কানাডায় বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে ট্রুডো
যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের যোগদান অনলাইনে
‘করোনা রোধে নারায়ণগঞ্জের সিস্টেমটা সারাদেশে প্রয়োগ হবে’


বর্ণ-বৈষম্য দূরীকরণে ১০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেবেন জর্ডান
ফেনীতে করোনা আক্রান্ত বাড়লেও তোয়াক্কা নেই স্বাস্থ্যবিধির
করোনা উপসর্গে মৃত্যু: পরিবার পিছুহটায় দাফন করলো প্রশাসন
বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল বিশ্ব
ভার্চ্যুয়াল আদালতে সারাদেশে সাড়ে ২৭ হাজার আসামির জামিন