php glass

সাহরির প্রয়োজনীয় মাসআলা

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সাহরি। ফাইল ফটো

walton

শেষ রাতের বা ভোরের খাবারকে সাহরি বলা হয়। অথবা সুবহে সাদিকের কাছাকাছি সময়ের খাবার খাওয়াকে ইসলামের পরিভাষায় সাহরি বলে। রোজা রাখার নিয়তে সাহরি খাওয়া সুন্নত। হাদিস শরিফে সাহরি খাওয়ার অনেক ফজিলত বর্ণিত হয়েছে।

♦ সাহরি খাওয়া সুন্নত। পেটে ক্ষুধা না থাকলে দু-একটি খেজুর খেয়ে নেওয়া উত্তম অথবা অন্য কোনো জিনিস খেয়ে নেবে। (হেদায়া, খণ্ড-১, পৃষ্ঠা ১৮৬)

♦ বিলম্বে সাহরি খাওয়া উত্তম। আগে খাওয়া হয়ে গেলে শেষ সময়ে কিছু চা, পানি, পান ইত্যাদি খেলেও সাহরির ফজিলত অর্জিত হবে। (হেদায়া, খণ্ড-১, পৃষ্ঠা ১৮৬)

♦ সময় আছে, নাকি নেই—এমন সন্দেহ নিয়ে সাহরি খাওয়া মাকরুহ। (আলমগিরি, খণ্ড-১, পৃষ্ঠা ২০১)

♦ সঠিক ক্যালেন্ডারে সুবহে সাদিকের যে সময় দেওয়া থাকে, তার দু-চার মিনিট আগে খানা বন্ধ করে দেবে। এক-দুই মিনিট আগে-পিছে হলে রোজা হয়ে যাবে, তবে ১০ মিনিট পর খাওয়ার দ্বারা রোজা হবে না। (আপকে মাসায়েল, খণ্ড-৩, পৃষ্ঠা ২০১) কিন্তু মনে রাখতে হবে, শুধু ক্যালেন্ডারের ওপর নির্ভর করা উচিত নয়, কেননা অনেক সময় তাতে ভুলও হয়ে থাকে, তাই এ ব্যাপারে সতর্ক হওয়া দরকার।

♦ নিদ্রার কারণে সাহরি খেতে না পারলেও রোজা রাখতে হবে। সাহরি খেতে না পারায় রোজা না রাখা অত্যন্ত পাপ। (বেহেস্তি জেওর, পৃষ্ঠা ৩৫৩)

রমজানবিষয়ক যেকোনো লেখা আপনিও দিতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ০৩৫৪ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
পোস্টমর্টেম রিপোর্ট স্পষ্ট অক্ষরে লেখার নির্দেশ
বঙ্গবন্ধু-প্রধানমন্ত্রীকে ছাপিয়ে ছোট নেতাদের বড় ছবি!
মন্দবাগ ট্রাডেজির জন্য দায়ী তূর্ণার লোকোমাস্টার-গার্ড
এবার বসুন্ধরা কিংসে এক আর্জেন্টাইন
গাইবান্ধায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জাপানের সহায়তা চাইলেন শাহরিয়ার আলম
সিলেটে মোবাইলফোনসহ ৪ চোরাকারবারি আটক
‘নতুন সড়ক পরিবহন আইনে গাড়ি চালানো সম্ভব নয়’
বরিশালে দুই রেস্টুরেন্টকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা
বাংলা চলচ্চিত্র বিশ্ববাজারে পৌঁছে দেওয়া সরকারের লক্ষ্য