রমজান-প্রস্তুতির জন্য ৮টি নির্দেশনা

মো. গোলাম আজম রাশেদ, অতিথি লেখক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : প্রতীকী

walton

ঈমানদারমাত্রই কামনা করেন, রমজান শুরু হোক ভালোভাবে। রমজানের সুন্দর প্রভাব স্থায়ীভাবে প্রভাব ফেলুক জীবনে। তাই রমজান সঠিক ও স্বার্থক করতে কিছু পদক্ষেপ ও প্রস্তুতি থাকা বাঞ্ছনীয়। বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য রমজানের প্রস্তুতি উপলক্ষে ৮টি নির্দেশনা উল্লেখ করা হলো। এগুলো অনুসরণ করলে আশা করা যায়, রমজান-পরিকল্পনা সুন্দর ও গোছালো হবে। পাশাপাশি পুণ্য-বৈভবে স্বার্থক ও কল্যাণপ্রসূ হবে।

php glass

রমজান ‘কাউন্ট ডাউন’ তৈরি
মনে রেখে কিংবা ক্যালেন্ডারে দাগ দিয়ে রমজানের আগমনের দিন গণনা শুরু করুন। এভাবে ক্ষণ-গণনা ‘মিষ্টি অপেক্ষাবোধ ও ভালোলাগা’ সৃষ্টি করবে। পরিবার কিংবা বন্ধুরা মিলে এমন আয়োজন করলে, প্রতিদিন অন্যরকম আনন্দ উপভোগ করা যাবে। পাশাপাশি প্রস্তুতিটাও সুন্দর হবে।

রমজান সম্পর্কে জ্ঞান অন্বেষণ ও পড়াশোনা
রমজানের সবকিছু বছরের অন্য সময়ের তুলনায় বৈচিত্রময় হয়। তাই রমজানের ইবাদতগুলো সঠিক ও পূর্ণভাবে পালনের স্বার্থে পড়াশোনা ও রমজানবিষয়ক জ্ঞান অন্বেষণ জরুরি। এতে অনুপ্রেরণা, উদ্দীপনা ও আগ্রহ বাড়বে। রমজান সম্পর্কে যতো বেশি জানা যাবে, ততো বেশি ইবাদাত-বন্দেগি করে প্রতিদান ও পুরস্কারের পরিমাণ বাড়িয়ে নেওয়া যাবে।

রমজানের জন্য আলাদা-গোছালো পরিকল্পনা
নিয়মিত আমলের পাশাপাশি অন্যান্য ইবাদত-বন্দেগি—কোরআন খতম, নিয়মিত তারাবির নামাজ, দান-সদকা, অন্যের সেবা ও আত্মীয়-স্বজনদের সাহরি-ইফতারে আমন্ত্রণ ইত্যাদি বাস্তবায়নে সুচিন্তিত ও গোছালো পরিকল্পনা করা যায়। এতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় কোনো ব্যাঘাত না হয়ে দৈনন্দিন কাজ-কর্ম, ইবাদত-বন্দেগি ও অন্যান্য কিছুতে নিয়মতান্ত্রিকতা রক্ষা পাবে। রমজানও উপভোগ্য ও সহজতর হবে।

জীবন ও লক্ষ্য সম্পর্কে সচেতন হওয়া
মানুষের নিয়তি কিংবা জীবনযাত্রার শেষ কোথায় আল্লাহ ছাড়া কেউ জানেন না। তাই রমজানে বা রমজানের পরের প্রতিট মুহূর্ত সম্পর্কে সদা সচেতন থাকা চাই। অন্যদিকে রমজানে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজও থাকতে পারে। যেমন- পরীক্ষা, কারো বিয়ে বা কোনো অনুষ্ঠান, বাসা বদলানো কিংবা আরো অন্য কোনো কাজ। তাই এ ধরনের কোনো কর্মসূচী থাকলে রমজান শুরু হওয়ার আগেই পরিকল্পনা করা উচিত। প্রয়োজনে ও সতর্কতার কারণে ঈদ কিংবা গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানের কেনাকাটা রমজানের আগেই সেরে নেওয়া যায়। এতে রমজান শুরু হওয়ার পূর্বে রমজান-প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়ে যাবে। 

আত্মিক, মানসিক ও আধ্যাত্মিকভাবে তৈরি হওয়া
স্বাভাবিকতই রমজান সিয়ামব্রত পালন, তারাবি-নফল, কোরআন তেলাওয়াত ও সদকা-বদান্যতার মাস। রমজানের অপেক্ষায় বসে না থেকে এখন থেকেই এই ইবাদত-বন্দেগি করা শুরু যায়। নফল নামাজ, দুই-চারটা রোজা, কোরআন তেলাওয়াত, মানুষের প্রতি প্রেম-ভালোবাসা ও উদারতা প্রকাশসহ অন্যান্য কাজের মাধ্যমে প্রিয় নবী (সা.) এর সুন্নত অনুসরণের চেষ্টা করুন। প্রসঙ্গত শাবান মাসের নফল রোজার সওয়াব অনেক বেশি।

নিজেকে প্রস্তুত করা
কথোপকথন, আচরণ-উচ্চারণ ও ব্যবহারিক কর্মকাণ্ডে নিজের ভেতর পরিবর্তন আনা জরুরি। রমজান মাসেও আগের মতো কর্মকাণ্ড কিংবা আচরণ-উচ্চারণ থেকে গেলে তা নিন্দনীয়। অথবা শুধুমাত্র রমজানে ভালো হওয়ার কিংবা ভালো থাকার চেষ্টা করে—পরে ‘যেই লাউ সেই কদু’ ধরনের হয়ে যাওয়ার মন-মানসিকতা পরিবর্তন অপরিহার্য। পরনিন্দা, পরচর্চা ও অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় কাজকর্ম থেকে বেঁছে থেকে গঠনমূলক ও ফলপ্রসূ কাজে নিবেদিত হওয়ার চেষ্টা করাও গুরুত্বপূর্ণ।

বাজে অভ্যাস পরিবর্তনে অনুশীলন
নিজের খারাপ ও বাজে অভ্যাসগুলো চিহ্নিত করে এখন থেকে সেগুলো ছেড়ে দেওয়ার চেষ্টা করা চাই। অনেকের দেরিতে ঘুমানোর অভ্যাস থাকে, তাই এখন থেকেই তাড়াতাড়ি ঘুমানোর অভ্যাস করা, ফেসবুক আসক্ত হলে ফেসবুক ব্যবহারের মাত্রা কমানো ইত্যাদি অনুশীলন করা যায়। কঠিন মনে হলেও নিয়ত শুদ্ধ রেখে শুরু করলে, বাকি কাজ সহজ হয়ে যায়। বান্দার জন্য মহান আল্লাহ তাআলা সহজ করে দেন। দেখা যাবে সহজেই বাজে ও খারাপ অভ্যাসগুলো থেকে দূরে থাকার মানসিকতা তৈরি হয়েছে।

সার্বিক পরিকল্পনা ইবাদত-বন্দেগি উপযোগী হওয়া
পূর্ব নির্ধারিত কাজ-মিটিংয়ের আয়োজন ভেবে-চিন্তে করা। যেন নামাজ, ইফতার-সাহরি কিংবা অন্য গুরুত্বপূর্ণ ইবাদতের সময়ের সঙ্গে সাংঘর্ষিক না হয়। নিজেও যেন তাড়াহুড়ায় না পড়ে স্বাভাবিকভাবে কাজ করা যায়।

এছাড়াও সুযোগ-সুবিধা মতো আরো পরিকল্পনা করা যায়। তবু আশা করা যায়, এই ৮টি নির্দেশনা কেউ অনুসরণ করলে তার রমজান পালন স্বার্থক ও কল্যাণপ্রসূ হবে। আল্লাহ আমাদের তাওফিক দান করুন।

লেখক: ইসলামবিষয়ক গবেষক ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, হাটহাজারী, চট্টগ্রাম।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ৩০, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে কাটলো বিনিয়োগ সংকট, গতি কাজে
রংপুরে হোটেল-বেকারির অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট
ভবন থেকে ফেলে দেওয়ায় নবজাতকের মৃত্যু
মেসির গোলেও শিরোপা ধরে রাখতে পারল না বার্সা
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত


পাহাড়ি ফুটবলকন্যা মনিকার বিশ্বজোড়া খ্যাতি!
জাহাজশিল্পে ক্যারিয়ার গড়ুন বাগেরহাট মেরিন ইনস্টিটিউটে
চকরিয়ায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে শিক্ষার্থীর মৃত্যু
এতিমখানা ও মাদ্রাসায় ঈদ বস্ত্র বিতরণ
বিপদসীমার নিচে মনু নদের পানি, জনমনে স্বস্তি