বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবার, সদস্য ৩৪৬! 

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

.

walton

৮৭ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ দাবি করেছেন, তার পরিবার পৃথিবীর সবচেয়ে বড় পরিবার। ৩৪৬ জন সদস্য নিয়ে তার বসবাস। তিনি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ পরিবারের জন্য আবেদনও করেছেন। 

php glass

এ বৃদ্ধের নাম পাভেল সিমিনইয়ুক। তিনি ইউক্রেনের বাসিন্দা। তার সন্তান ১৩ জন, নাতি-নাতনি ১২৭ জন, নাতি-নাতনির সন্তান ২০৩ জন এবং নাতি-নাতনির সন্তানের সন্তান ৩ জন। এ নিয়ে সর্বমোট ৩৪৬ জন সদস্য নিয়ে তার বসবাস। তার পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্যটির বয়স মাত্র দুই সপ্তাহ।.পাভেল সিমিনইয়ুক সব সময় বড় পরিবারের স্বপ্ন দেখতেন। দক্ষিণ ইউক্রেনের দ্রোবোস্লাভে বসবাস করা এ বৃদ্ধ এতো বড় পরিবার পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করেন। 

বিশাল এ পরিবারের কর্তা সাবেক নির্মাণ শ্রমিক পাভেল বলেন, এতো বড় পরিবার পেয়ে আমি ভাগ্যবান। কিন্তু মুশকিল হলো, পরিবারের প্রত্যেকের নাম মনে রাখা খুব কঠিন। বয়সে বড়দের নাম মনে রাখতে পারি কিন্তু কম বয়সীদের নাম মনে রাখা কঠিন হয়ে যায়।প্রত্যেক বছর পাভেলের পরিবারের কোনো সদস্য নতুন পরিবার গঠন করেন। তিনি বলেন, এ কারণে আমার নির্মাণ ব্যবসায় লোকের অভাব হয় না।.পাভেলের পরিবারের ৩০ জন শিশু এখন স্কুলে যায়। তাদের জন্মদিনে আয়োজনও হয় অনেক বড়। পাভেলের মেয়ে ৬৬ বছর বয়সী ভিরা সিমিনইয়ুক বলেন, বিয়ে কিংবা জন্মদিনের পার্টির জন্য আমরা বিশাল বড় পাত্রে রান্না করি। এসময় প্রত্যেক নারী একে অপরকে সাহায্য করে। পাভেলের পরিবার ইতোমধ্যেই ইউক্রেনের সবচেয়ে বড় পরিবার হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের জন্য তার পরিবারের প্রত্যেকের নাম জাতীয়ভাবে নিবন্ধনও করা হয়েছে। .জাতীয় নিবন্ধন সংস্থার প্রধান লানা ভেদরোভা বলেন, এরকম পরিবারের সংখ্যা পৃথিবীতে নেই বললেই চলে। তিনি বলেন, এর আগে অবশ্য ১৯২ সদস্য নিয়ে ভারতের একটি পরিবার গিনেস বুকে রেকর্ড করে। 

বাংলাদেশ সময়: ১০০২ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১৮
এএইচ/এএ

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে কাটলো বিনিয়োগ সংকট, গতি কাজে
রংপুরে হোটেল-বেকারির অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট
ভবন থেকে ফেলে দেওয়ায় নবজাতকের মৃত্যু
মেসির গোলেও শিরোপা ধরে রাখতে পারল না বার্সা
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত


পাহাড়ি ফুটবলকন্যা মনিকার বিশ্বজোড়া খ্যাতি!
জাহাজশিল্পে ক্যারিয়ার গড়ুন বাগেরহাট মেরিন ইনস্টিটিউটে
চকরিয়ায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে শিক্ষার্থীর মৃত্যু
এতিমখানা ও মাদ্রাসায় ঈদ বস্ত্র বিতরণ
বিপদসীমার নিচে মনু নদের পানি, জনমনে স্বস্তি