php glass

খাদ্যশিকারি বেবুন সৈন্যরা

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

খাদ্যশিকারি বেবুন সৈন্যরা

walton

হ্যামাড্রিয়াস বেবুনরা (বৈজ্ঞানিক নাম Papio hamadryas) আফ্রিকা ও দক্ষিণ এশিয়ার জঙ্গলগুলোতে সংঘবদ্ধভাবে বসবাস করে। কুকুরমুখো এই বড় বানর বা মর্কটদের প্রত্যেকটি গোষ্ঠীতে সৈন্যদল থাকে। যারা শত্রুদের সঙ্গে লড়াই করে বা চোখ এড়িয়ে খাদ্য সংগ্রহ করে নিয়ে আসে দলের সকলের জন্য।  

তেমনই একটি বেবুন জনগোষ্ঠীর সৈন্যদের দেখা গেছে উত্তর আফ্রিকার জঙ্গলে। তারা অন্যদিনের মতোই রাতের ঘুম থেকে জেগে উঠে খুব ভোরে খাবারের সন্ধানে যাত্রার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের নিরাপদ বাঁধের বাসস্থান ত্যাগ করে গাছের গুঁড়ির শীর্ষে অবস্থান করছিল। 

বিবিসির চলচ্চিত্র নির্মাতা স্যার ডেভিড এটেনবারো ‘লাইফ’ ধারাবাহিকের জন্য চিত্তাকর্ষক দৃশ্যটি ধারণ করেন। সেখানে আরও দেখা যায়, বিশেষ ওই সকালে বেবুনরা তাদের যাত্রাপথে আটকে গিয়ে ওই উঁচু স্থানে অবস্থান নেয়। কারণ, তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী সৈন্যরা তাদের যাত্রাপথে হেঁটে যাচ্ছে। 

এ বানর গোষ্ঠী স্পষ্ট কোনো নেতা ছাড়াই খুব জটিল সমাজে বাস করে। দলের ৪০০ সদস্য ছিল কয়েক ডজন ক্ষুদ্র দলে বিভক্ত। প্রতিটি দলই পুরুষ নিয়ন্ত্রিত।

সব বাহিনীর মতোই এদেরও কঠোর শৃঙ্খলা রয়েছে, দলনেতাদের আদেশও মেনে চলে।

তবে কখনো কখনো শত্রুদের সঙ্গে যুদ্ধের বিশৃঙ্খলায় এ বেবুন পুরুষ সৈন্যরা পিছু হটে এবং নারীরা চুরি হয়ে যায়।

প্রাচীন মিশরীয়দের দ্বারা একবার সম্মানিত হয়ে তারা ‘পবিত্র বেবুন’ নামেও পরিচিত।

বাংলাদেশ সময়: ০২২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৪, ২০১৭
এএসআর

পেশাদারি ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন ডেভিড ভিয়া
২৫ জনকে আসামি করে ফাহাদ হত্যা মামলার অভিযোগপত্র
এখন পর্যন্ত শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলা ৩৬১টি
ইন্দোনেশিয়ায় পুলিশ সদরদপ্তরে বোমা হামলা, নিহত ১
আ’লীগ থেকে বিএনপিতে আসার অবস্থা তৈরি হয়েছে: ফখরুল


ভারত-বাংলাদেশ কলকাতা টেস্টের সময় এগিয়ে আনা হলো
বশেমুরবিপ্রবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু
বেপরোয়া রাজনীতি রাজনৈতিক দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে: কাদের
শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত ভারতের ক্রিকেট
দেশে ১ কোটি মানুষ কর দিতে সক্ষম: তথ্যমন্ত্রী