php glass

দক্ষিণ আমেরিকার সবচেয়ে সস্তার শহর!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহিত

walton

পেরুর রাজধানী লিমার স্যান প্যালেগরিনো রেস্টুরেন্ট বিশ্বসেরা ৫০টির একটি, যে তালিকায় প্যারিস, টোকিও, লন্ডন ও নিউইয়র্ক অন্তর্ভুক্ত। অধিকাংশ পর্যটক পেরুর বিখ্যাত মাচু-পিচুর ধ্বংসাবশেষ দেখতে যাওয়ার পথে লিমার রেস্টুরেন্টটিতে আসেন।

পেরুর রাজধানী লিমার স্যান প্যালেগরিনো রেস্টুরেন্ট বিশ্বসেরা ৫০টির একটি, যে তালিকায় প্যারিস, টোকিও, লন্ডন ও নিউইয়র্ক অন্তর্ভুক্ত। অধিকাংশ পর্যটক পেরুর বিখ্যাত মাচু-পিচুর ধ্বংসাবশেষ দেখতে যাওয়ার পথে লিমার রেস্টুরেন্টটিতে আসেন।

তাদের মতে, খুব ভালো এ শহরটির জীবনযাত্রার ব্যয় এ রেস্টুরেন্টটির মতোই সস্তা।

প্রায় ১ কোটি বাসিন্দার লিমা দক্ষিণ আমেরিকার চতুর্থ বৃহত্তম শহর। প্রশান্ত মহাসাগর পারের শহরটির মূল শক্তি হচ্ছে, সঙ্গীত ও রাতের মনোরম সৌন্দর্যের পাশাপাশি অবস্থান।

লিমার অধিবাসীরা রন্ধনপ্রণালী সম্পর্কেও উৎসাহী। চেভিসি নামক এখানকার একটি খাবার পৃথিবীজুড়ে জনপ্রিয়।
ছবি: সংগৃহিত
রিয়েল ওয়ার্ল্ড হলিডেজ ভ্রমণ কোম্পানির ড্যান ক্লার্ক গত এক বছর ধরে লিমায় বসবাস করছেন। তার মতে, ‘সব সময় এখানে কিছু না কিছু করার আছে। স্থানীয়রা ভ্রমণকারীদের প্রতি বিশেষ বন্ধুত্বপূর্ণ এবং সব সময় সাধ্যমতো ভালো খাবার মেলে। সামুদ্রিক খাবার ও চীনা রেস্তোরাঁর পরম চিনাবাদামসহ পেরুর অধিবাসীদের খাদ্য উপাদান, রন্ধনপ্রণালী ও মান উন্নত’।


৩০টি জেলা নিয়ে গঠিত লিমা প্রদেশ ঘনবসতিপূর্ণ, সর্বদা চলমান, আরও আবাসিক এবং শান্ত এলাকা। এখান থেকে দক্ষিণ আমেরিকার শহর রিও ডি, বুয়েনস জ্যানেরিও এবং সান জোসের মতো মধ্য আমেরিকার শহরে চার থেকে পাঁচ ঘন্টার মধ্যে সরাসরি ফ্লাইটযোগে পৌঁছানো যায়।
ছবি: সংগৃহিত
বোহেমিয়ান বারানকো লিমার সবচেয়ে জনপ্রিয় এলাকাগুলোর একটি। স্পেনীয় ঔপনিবেশিক সংরক্ষিত ঘর ক্যাসোনার জন্য বিখ্যাত। মহাসাগর দেখা যায়, সবুজময় স্থান এবং রেস্টুরেন্ট ও ক্যাফে প্রচুর। শিল্পী, লেখক ও সঙ্গীতশিল্পীদেরও প্রিয় জায়গা। এছাড়াও বারানকোয় সার্ফার বান্ধব সৈকত এবং নৌকা চালকদের ইয়ট ক্লাব রয়েছে।

পর্যটকদের দ্রুত এক ঘণ্টার ফ্লাইটে কোস্কোর বিখ্যাত ইনকা সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ দেখতে নিয়ে যাওয়া হয়। পাহাড়ের উপত্যকায় অন্যান্য আকর্ষণীয় গন্তব্যস্থলও প্রচুর। কখনও একটি প্লেনে পদবিন্যাস ছাড়াই পৌঁছানো যাবে।

দক্ষিণের চাভেজে পর্যটকদের ভিড় লেগেই থাকে। শপিংমল, রেস্টুরেন্ট, রাতের  বিনোদনকেন্দ্রও অনেক রয়েছে।
ছবি: সংগৃহিত
শহরের অর্থনৈতিক কেন্দ্র সান ইসিদ্রো রাজনীতিবিদ ও সেলিব্রিটিদের কাছে জনপ্রিয়। বিখ্যাত লিমা গলফ ক্লাব ও বস্ক এল অলিভার গাডেন রয়েছে, যেখানে ১৭ শতক থেকে এখনও স্প্যানিশ জলপাই গাছ বাড়িতে লাগানো হয়।

একইভাবে লা মোলিনায় বড় ঘর এবং অনেক দেশের একচেটিয়া ক্লাব রয়েছে।

লুনচাওনার ক্যানেটি নদীর সাদা জলে ভেলায় ভ্রমণ স্থানীয় ও পর্যটকদের সমান আকর্ষণ করে। সিনেগুইলা ক্যাম্পিং ও পর্বতারোহণের জন্য বিখ্যাত।

লিমা দক্ষিণ আমেরিকার অনেক দেশের শহরের তুলনায় অনেক বেশি সাশ্রয়ী। মূল্য তুলনা সাইট এক্সপাতিস্তান.কমের মতে, ওই শহরগুলোর চেয়ে লিমার খাদ্য, আবাসন ও পরিবহন ব্যয় প্রায় ২৫ শতাংশ কম। নিউইয়র্ক সিটির তুলনায় প্রায় ৬০ শতাংশ কম ব্যয়বহুল এবং রিও ও বুয়েনসের চেয়ে গড়ে ব্যয়বহুল।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬
এএসআর

এসডিজি-২০৩০ অর্জনে বাংলাদেশ সঠিক পথেই হাঁটছে
৫০০ কোটি টাকার বন্ড ছাড়বে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক
লঙ্কানদের হোয়াইটওয়াশ করলো টাইগার যুবারা
নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির সঙ্গে একই সিনেমায় তাহসান খান
জমি সংক্রান্ত বিরোধে যুবককে এসিডে ঝলসে দিলো প্রতিপক্ষ


লবণসহ পণ্যের দাম বেশি রাখায় ৬২ হাজার টাকা জরিমানা
এনায়েতপুরে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার
জয়পুরহাটে স্কুল ব্যাংকিং কনফারেন্স
দারুসসালামে পিস্তলসহ আটক ১
গাছের ডাল কাটতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্র‌মিক নিহত