php glass

শাবক বয়ে বেড়াতো সিংহরাও!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

অস্ট্রেলিয়ায় শাবকবাহী (পেটের তলায় থলিতে শাবক বহন করে এমন স্তন্যপায়ী) প্রাণীদের কিছু প্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে গেছে, কিছু টিকে আছে দশ লাখ বছর ধরে। 

অস্ট্রেলিয়ায় শাবকবাহী (পেটের তলায় থলিতে শাবক বহন করে এমন স্তন্যপায়ী) প্রাণীদের কিছু প্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে গেছে, কিছু টিকে আছে দশ লাখ বছর ধরে। 
 
প্রাগৈতিহাসিক প্লেইস্টোসিন প্রাণীর যুগ থেকেই অস্ট্রেলিয়া মূলত ছিল শাবকবাহী বা মার্সুপিয়াল জীবের ভূখণ্ড, যা এখনো আছে। এখন ক্যাঙ্গারু বা সম প্রজাতির মার্সুপিয়াল দেখা গেলেও সে যুগে এ বৈশিষ্ট্য ছিল দৈত্যাকার প্রাণী, ৫ মিটার দীর্ঘ টিকটিকি, অর্ধ টন ওজনের পাখি ও বিশালাকৃতির ডাইনোসরের মতো কচ্ছপদের মাঝেও। 
 
সবচেয়ে অবাক করা বিষয় যে, বড় আকারের সিংহরাও বয়ে বেড়াতো তাদের শাবকদের। তবে ১ মিটার দীর্ঘ শাবকবাহী সিংহ সত্যিকারের সিংহ ছিল না। প্রাণীটি আসলে ঘনিষ্ঠভাবে ডিপরোটোডনের (গণ্ডার-ভালুকের মতো দেখতে বিলুপ্ত হাতি)  সঙ্গে সম্পর্কিত ছিল। 
 
শিকারী এ প্রাণীরা ব্যাপকভাবে বিবর্তিত হয়েছে। মার্সুপিয়াল লায়ন তার তৃণভোজী কাজিন ডিপরোটোডনের চেয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন পথ বেছে নিয়েছিল। আর কামড় দিতে পারা স্তন্যপায়ী প্রজাতিগুলোর মধ্যেও এ সিংহ তার আকারের জন্য সবচেয়ে শক্তিশালী প্রাণী বলেও পরিচিত ছিল। 
     
ডিপরোটোডন তৃণভোজী হওয়ায় তাদের সামনের দু’টি সামনের দাঁত বা জোড়া কর্তক দন্ত এবং মুষ্টি আকারের পেষক দাঁত মোটা গাছপালা নিষ্পেষণ ও চেরাইয়ের জন্য ডিজাইন করা ছিল। অন্যদিকে বড় আকারের শিকার নিখুঁতভাবে ধরতে শাবকবাহী সিংহের এই কর্তক দন্ত বিশাল ও সরু অস্ত্রে পরিণত হয়ে যায়। আর পেষক দাঁত আরামে শিকারীর মরদেহ কাটা-ছেড়া ও চিবানোর উপযোগী হয়ে সাজানো ছিল।
 
বাংলাদেশ সময়: ০২৪১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৬
এএসআর

দিবারাত্রির টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
সেঞ্চুরি বঞ্চিত স্টোকস, চাপে পড়েছে নিউজিল্যান্ড
হাতীবান্ধায় আ’লীগের পাল্টাপাল্টি কমিটি, সংঘর্ষের আশঙ্কা
গুজব বন্ধে ফেসবুক-ইউটিউব আইনের আওতায় আসছে
২৫ নভেম্বর লন্ডন মাতাবে কারি অ্যাওয়ার্ড


ফুডপ্রো এক্সপোতে দর্শনার্থীদের ভিড়
চট্টগ্রাম-৮ আসনে উপ নির্বাচনের প্রস্তুতি
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ
১৩ ডিগ্রিতে নেমেছে পঞ্চগড়ের তাপমাত্রা
লালমনিরহাট থেকে সব রুটে বাস চলাচল শুরু