‘জ্বালানি খাতের উন্নয়নে পরিবেশের দিকেই নজর দিতে হবে’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

জ্বালানি খাতের উন্নয়নে পরিবেশের দিকেই সবচেয়ে বেশি নজর দিতে হবে। কারণ এ খাতের সঙ্গে কার্বণ নিঃসরণও সম্পৃক্ত। পরিবেশ দূষণের জন্য প্রত্যক্ষভাবে এটি দায়ী। তাই পরিবেশ বান্ধব জ্বালানি খাতের টেকসই উন্নয়নে সময়োপযোগী আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে।

ঢাকা: জ্বালানি খাতের উন্নয়নে পরিবেশের দিকেই সবচেয়ে বেশি নজর দিতে হবে। কারণ এ খাতের সঙ্গে কার্বণ নিঃসরণও সম্পৃক্ত। পরিবেশ দূষণের জন্য প্রত্যক্ষভাবে এটি দায়ী। তাই পরিবেশ বান্ধব জ্বালানি খাতের টেকসই উন্নয়নে সময়োপযোগী আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীতে জ্বালানিবিষয়ক এক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলছিলেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আইনুন নিশাত।

‘জ্বালানি খাত উন্নয়নে সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রকল্প’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী এ কর্মশালার আয়োজন করে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব গভর্নেন্স স্টাডিজ (আইজিএস) ও স্কুল অফ ল’ (এসওএল)।

দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার প্রায় অর্ধশতাধিক ছাত্র, শিক্ষক, আইনজীবী ও গবেষক এতে অংশ নেন।

আইনুন নিশাত বলেন, “আমরা জ্বালানি খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধি করতে এ প্রকল্পটি শুরু করেছি। এই খাতের প্রতিটি বিষয় সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকতে হবে। আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনের একটি প্রধান কারণ হল ধনী দেশগুলোর কার্বন নিঃসরণ। অনেক দেরিতে হলেও বিষয়টি বিশ্বের অন্যতম সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।”

নবায়নযোগ্য জ্বালানি নিয়ে গবেষণায় মার্কিন সরকার এরই মধ্যে ৮০ বিলিয়ন ইউএস ডলারের প্রকল্প ঘোষণা করেছে বলেও জানান তিনি।

সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী সিএফএল বাল্ব বিনামূল্যে বিতরণের বিষয়টিকে একটি ইতিবাচক দিক হিসেবে উল্লেখ করে আইনুন নিশাত বলেন,  “এর বিপরীতে কার্বণ ট্রেডিংয়ের আওতায় কম কার্বণ নিঃসরণের জন্য সরকার টাকা পাবে। যা একটি ভালো লক্ষণ।”

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইনস্টিটিউট অব গভর্নেন্স স্টাডিজ (আইজিএস)-এর পরিচালক ব্যারিস্টার মানজুর হাসান, স্কুল অফ ল’ (এসওএল)-এর অধ্যাপক কে সামসুদ্দিন মাহমুদ ও জ্বালানি খাত উন্নয়নে সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রকল্পের সমন্বয়কারী ড. তুরিন আফরোজ।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১০
এইচএ/এজে/কেএল

Nagad
শীর্ষ চারের লড়াইয়ে এগিয়ে গেল চেলসি
এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্যানুষ্ঠান শুরু, চলছে প্রার্থনা
বার বার অবস্থান পরিবর্তন, দালালের সহায়তায় দেশত্যাগের চেষ্টা
স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলছে ব্যাংকের কার্যক্রম
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ১৬৭


খুলনায় দিয়াশলয় নিয়ে মারামারিতে যুবক নিহত
চামড়া সংরক্ষণের লবণ মজুদ আছে, বাড়বে না দাম
‘ফাস্ট-ট্র্যাক’ প্রকল্পে মেট্রোরেল রুট ১ ও ৫
সাহেদকে নিয়ে ঢাকায় পৌঁছেছে র‌্যাবের আভিযানিক দল
বোরকা পরে নৌকায় করে পালাচ্ছিলেন সাহেদ