ঢাকা, শনিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ রজব ১৪৪২

জাতীয়

জেল-জরিমানার বিধান রেখে ট্যুর অপারেটর-গাইড আইন অনুমোদন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২১
জেল-জরিমানার বিধান রেখে ট্যুর অপারেটর-গাইড আইন অনুমোদন

ঢাকা: ট্যুর অপারেটরগুলোর নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করে ‘বাংলাদেশ ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড (নিবন্ধন ও পরিচালনা) আইন, ২০২১’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।
 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার (২৫ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদ ভবনে মন্ত্রিসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।


 
বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের পর্যটনশিল্প বিকাশের লক্ষ্যে সুপরিকল্পিত ট্যুর কার্যক্রম পরিচালনায় ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড আইনের আওতায় পর্যটকদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য আইনের খসড়া প্রণয়ন করা হয়।
 
তিনি বলেন, ট্যুর অপারেটর কীভাবে পরিচালনা করা হবে, দেশি-বিদেশি ট্যুর অপারেটরদের কীভাবে অনুমোদন দেওয়া হবে, কীভাবে নিবন্ধন দেওয়া হবে- আইনে এসব উল্লেখ করা হয়েছে।
 
আইনে শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ট্যুর অপারেটররা যদি কোনো অপরাধ করে সরকারি বিধি বিধানের ক্ষেত্রে তাহলে অনধিক ছয় মাসের কারাদণ্ড এবং অনধিক দুই লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হবে।
 
অপরাধের বিচার মোবাইল কোর্টের আওতাধীন হবে এবং মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিচার করা যাবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।
 
নিবন্ধন ছাড়া কেউ ট্যুর অপারেশন করবে না জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নিবন্ধনের জন্য কী কী যোগ্যতা তা নির্ধারিত হবে। সনদের জন্য সরকার একটি নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ গঠন করে দেবে।
 
পর্যটকদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দেওয়ার আইন করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এর অধীনে একটি গাইডলাইন করা হবে। কোন সেবা কত টাকার মাধ্যমে পাওয়া যাবে, এগুলো পরিষ্কার হবে।
 
তিনি বলেন, বাংলাদেশের পর্যটনশিল্প বিকাশের জন্য ট্যুর অপারেটর ট্যুর গাইডের কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুচারুরূপে পরিচালনা করা সম্ভব হবে।
 
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আমরা আস্তে আস্তে যত উন্নত দেশের দিকে যাবো আমাদের সেবাগুলোর তত উন্নত হতে থাকবে। সেবাখাত আমাদের বড় কর্মসংস্থান এবং বিনিয়োগের একটা বড় ক্ষেত্র হবে। এজন্য আইন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আইনের মাধ্যমে পর্যটকদের স্বার্থ সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে জানিয়ে তিনি বলেন, অনেক বড় বড় ইনফরমাল ট্যুর হচ্ছে কিন্তু কোনো ভ্যাট বা ট্যাক্স সরকারের খাতে জমা হচ্ছে না। এজন্য যত নিবন্ধন ও ট্যুর হবে সবগুলো রাজস্ব বোর্ডের তত্ত্বাবধানে চলে আসবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২১
এমআইএইচ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa