ঢাকা, রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৭, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

সারাদেশে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের ঘোষণা সংস্কৃতিকর্মীদের

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০২০
সারাদেশে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের ঘোষণা সংস্কৃতিকর্মীদের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত প্রতিবাদ কর্মসূচি | ছবি: রাজীন চৌধুরী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন। একই সঙ্গে সারাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন সংস্কৃতিকর্মীরা।

শনিবার (০৫ ডিসেম্বর) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত কর্মসূচিতে এ ঘোষণা দেন তারা।

সভাপতির বক্তব্যে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস বলেন, বঙ্গবন্ধুর নির্মিতব্য ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকি; এটি নির্মাণ করা হলে ভেঙে বুড়িগঙ্গায় ফেলে দেওয়া হবে এ ধরনের ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম অঙ্গীকার ধর্মনিরপেক্ষতার বিরুদ্ধে হুংকার দেওয়ার প্রতিবাদে আজকে সারা দেশের মানুষ ফুঁসে উঠেছে।

তিনি বলেন, আমরা সংস্কৃতিকর্মীরা মনে করি ভাস্কর্য একটি জাতির ইতিহাস ও ঐতিহ্যের স্মারক। এটি কোনো ধর্মীয় কাঠামো নয়; এর সাথে ধর্মের কোনো সম্পর্ক নেই। যদি ধর্মের সম্পর্ক থাকত তাহলে মুসলিম প্রধান বিভিন্ন দেশে শত শত ভাস্কর্য থাকতো না।

আবৃত্তিশিল্পী মাসুদুজ্জামান বলেন, ধর্মান্ধদের এ ধরনের ষড়যন্ত্র নতুন কিছু নয়, যুগ যুগ ধরে তারা আমাদের সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা করে আসছে। আমাদের হৃদয়ের সমস্ত ভালোবাসা দিয়ে এই বাংলার মাটিতে প্রতিটি অঞ্চলে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন করেই ঘরে ফিরব। এর আগে কোনো বাঙালি ঘরে ফিরে যাবে না।

মানববন্ধন থেকে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসী সব রাজনৈতিক সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মসূচিতে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন, বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থা, বাংলাদেশ যাত্রাশিল্প উন্নয়ন পরিষদ, বাংলাদেশ চারুশিল্পী সংসদ, বাংলাদেশ সঙ্গীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদের প্রতিনিধিরা বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০২০
এসকেবি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa