ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ মাঘ ১৪২৭, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

বরিশাল নগরের বিভিন্ন সড়কের ওপর সাদা রঙের 'Sorry'

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
বরিশাল নগরের বিভিন্ন সড়কের ওপর সাদা রঙের 'Sorry' বরিশাল নগরের বিভিন্ন সড়কের ওপর সাদা রঙের 'Sorry'। ছবি: বাংলানিউজ

বরিশাল: বরিশাল নগরের বেশ কয়েকটি সড়কের ওপর রঙ দিয়ে ইংরেজিতে 'Sorry' লেখা একটি শব্দকে ঘিরে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

কে বা কারা কেনই বা এ লেখাটি লিখেছে তার কোন হদিস না মিললেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এটিকে নিয়ে শুরু হয়েছে নানান জল্পনা কল্পনার।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দিবাগত রাতে নগরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, লাইনরোড অর্থাৎ কোতোয়ালি মডেল থানার সামনের সড়কের দু'টি স্থানে ইংরেজিতে সরি শব্দটি লেখা রয়েছে। এরপর চকবাজারের পুলের ওপর এবং নগরের নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল সংলগ্ন জিয়া সড়কে বেশ  কয়েকটি স্থানে একইভাবে সরি শব্দটি লেখা রয়েছে। যদিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরা একটি ছবিতে সড়কের বাহিরে একটি দেয়ালেও একইভাবে সরি লেখা শব্দটিকে দেখা গেছে। তবে কে বা কারা এবং কেন এ লেখাটি লিখেছে তা জানাতে পারেনি স্থানীয়রা।

চকবাজার সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা নুরুল আমিন বাংলানিউজকে জানান, প্রথমে চকবাজারের পুলের ওপর থাকা লেখাটি চোঁখে পরে। এরপর মঙ্গলবার রাতে কোতোয়ালি মডেল থানার পেছনের গেট সংলগ্ন সড়কে পর পর দু'টি স্থানে ইংরেজিতে সরি লেখা শব্দটি দেখতে পান। আর সব লেখাতেই সাদা রঙের ব্যবহার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে তুলি নয় স্প্রে দিয়ে এটি লেখা হয়েছে।

স্থানীয় যুবদের ধারণা কারো অভিমান ভাঙ্গাতেই কেউ হয়তো বা এমন লেখাটি লিখেছেন। কেই বা বলছেন এটি কোন এক ক্রেজি লাভারের কাজ।

যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকেও চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।  ফেসবুকে সড়কে সরি লেখার ছবি দিয়ে নাজমুল হাসান নামে একজন লিখেছেন “বরিশালে কোন এক crazy লাভারের কাজ! প্রিয় মানুষটার রাগ ভাঙ্গানোর জন্য সে জিয়া সড়ক একতা সরণী থেকে সরি লেখা শুরু করেছে, এই সরি সদর রোড পর্যন্ত দেখা গেছে। এই সরির শেষ কোথায় হইছে জানা নেই, কে কার জন্য লিখছে সেটাও কেউ জানে না, রাগ করে যেন কারো প্রিয় মানুষ হারিয়ে না যায়, দোয়া রইল, পূর্ণতা পাক তার ভালোবাসা।  

তবে এটাকে গুরুত্বের সহিত দেখার আহ্বান জানিয়েছেন সুশীল সমাজ।

বরিশালের সিনিয়র সাংবাদিক ও লেখক আনিসুর রহমান খান স্বপন বাংলানিউজকে বলেন, এ লেখার পেছনের কারণ কি? কেন লেখা হয়েছে? তা খতিয়ে দেখা উচিত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর। এটি সামাজিক ভাবে বিভ্রান্ত করার জন্যও হতে পারে কিংবা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকেও বিভ্রান্ত করার জন্য হতে পারে। আবার রাজনৈতিক কোন বিষয়ও থাকতে পারে তাই বিষয়টি খতিয়ে দেখা উচিত।

বাংলাদেশ সময়: ০৪১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
এমএস/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad
Alexa