ঢাকা, রবিবার, ৩ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

আজমিরীগঞ্জে আগুনে পুড়েছে ১২ দোকান

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ৯, ২০২০
আজমিরীগঞ্জে আগুনে পুড়েছে ১২ দোকান আজমিরীগঞ্জের লাল মিয়া বাজারে আগুন। ছবি: বাংলানিউজ

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ বাজারে পেট্রোলের দোকানে আগুন লেগে ১২টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৪০ লাখ টাকার বেশি দাবি করছেন ব্যবসায়ীরা।

সোমবার (১১ নভেম্বর) উপজেলায় ফায়ার স্টেশন না থাকায় স্থানীয় পাঁচ শতাধিক লোকজন ও অন্য উপজেলা থেকে দমকল বাহিনী এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন তরফদার বাংলানিউজকে জানান, আজমিরীগঞ্জের লাল মিয়া বাজারে একটি পেট্রোলের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। পরে একে একে ১২টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুন নেভাতে প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় লাগে। এরই মধ্যে বাজারের দুইটি দোকান ভেঙে সরিয়ে ফেলা হয়। এলাকার ৫ শতাধিক মানুষ আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি আরও জানান, ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন তাদের ৪০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এখনও ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি।

পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো হল, শফিকুল ইসলাম, উপনেন্দ্র দাস ও সুরঞ্জিত দেবনাথের ৩টি মোটরসাইকেল গ্যারেজ, জজ মিয়ার মোটরসাইকেল গ্যারেজ, মখলিছ মিয়ার পেট্রোলের দোকান, সাংবাদিক সেন্টু আহমেদ জিহানের রেফ্রিজারেটর ইঞ্জিনিয়াররিং ওয়ার্কসপ, রাংকু সূত্রধর, অভিমন্ডু সূত্রধর ও শংকর সূত্রধরের ৩টি ফার্নিচারের দোকান, প্রেমতোষ রায়ের স্টুডিও, জামাল মিয়ার কম্পিউটারের দোকান ও একটি কলার দোকান।  

হবিগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের কর্মকর্তা শিমুল মো. রফি বাংলানিউজকে জানান, আজমিরীগঞ্জে কোনো ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নেই। সেজন্য বানিয়াচং উপজেলা থেকে দমকল বাহিনীর সদস্যরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa