ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

বাংলাদেশসহ ৪ দেশের নারী শ্রমিকদের ত্রাণ দেবে যুক্তরাষ্ট্র

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৫৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০২০
বাংলাদেশসহ ৪ দেশের নারী শ্রমিকদের ত্রাণ দেবে যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা: এশিয়ার ক্ষতিগ্রস্ত সরবরাহ চেইন শ্রমিকদের সহায়তার জন্য ইউএসএআইডি এবং যুক্তরাষ্ট্রের খুচরা বিক্রেতা, পোশাক ও জুতা কোম্পানিগুলো সমঝোতা স্মারক ঘোষণা করেছে।

ভিয়েতনামের হ্যানয় থেকে অনলাইনে আয়োজিত যুক্তরাষ্ট্র সরকারের তৃতীয় বার্ষিক ইন্দো-প্যাসিফিক বিজনেস ফোরামের অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ইউএসএআইডির ডেপুটি এডমিনিস্ট্রেটর বনি গ্লিক যুক্তরাষ্ট্রের খুচরা বিক্রেতা, পোশাক ও জুতা কোম্পানিগুলোর জোট ও শিল্প-সংশ্লিষ্ট অ্যাসোসিয়েশনগুলোর সঙ্গে ইউএসএআইডির নতুন সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) ঘোষণা করেছেন।

বৃহস্পতিবার ( ২৯ অক্টোবর) ইউএসএআইডি ওয়াশিংটনের উদ্ধৃতি দিয়ে ঢাকার মার্কিন দূতাবাস এ তথ্য জানিয়েছে।

সমঝোতা স্মারকের আওতায় বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, শ্রীংলকা ও ভিয়েতনাম থেকে যুক্তরাষ্ট্রে সরবরাহ করা পণ্য উৎপাদনে নিয়োজিত বিশেষত নারী শ্রমিক চালিত শিল্প-প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মরত শ্রমিকদের জন্য প্রয়োজনীয় ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।

সমঝোতা স্মারকে ইউএসএআইডির পক্ষে ডেপুটি এডমিনিস্ট্রেটর গ্লিক এবং আমেরিকান পোশাক ও জুতা অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে জোটের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টিভ লামার চুক্তিপত্রে সই করেছেন।

চুক্তিতে অংশগ্রহণকারী যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি ও শিল্প-সংশ্লিষ্ট অ্যাসোসিয়েশনগুলো- কার্টারস ইনক, গ্যাপ, ইনক, গ্লোবাল ব্র্যান্ডস গ্রুপ, লেভি স্ট্রস অ্যান্ড কোম্পানি, নাইকি, টেপস্ট্রি, টার্গেট, ভিএফ করপোরেশন, ওয়ালমার্ট, আমেরিকান অ্যাপারেল অ্যান্ড ফুটওয়ার অ্যাসোসিয়েশন, ন্যাশনাল রিটেইল ফেডারেশন, রিটেইল ইন্ডাস্ট্রি লিডার্স অ্যাসোসিয়েশন, এবং ইউ এস, ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশন।

কোভিড-১৯ অতিমারি অভূতপূর্ব গতি ও মাত্রায় বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার মধ্য দিয়ে বৈশ্বিক পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থায় মারাত্মক ক্ষতিসাধন এবং বাণিজ্য ও বিনিয়োগ ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্ত হওয়ার ফলে বিশ্বজুড়ে সম্মুখসারির শ্রমিকরা ঝুঁকিতে পড়েছেন এবং বিভিন্ন খাতে কর্মরত লাখ লাখ শ্রমিক চাকরি হারিয়েছেন, যাদের মধ্যে একটি বড় অংশ হলেন নারী শ্রমিক। অতিমারির কারণে বাড়িতে থাকার নির্দেশ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সাময়িকভাবে বন্ধ হওয়া, উত্‌পাদন স্থগিতকরণ, জাহাজে পণ্য পাঠাতে বিলম্ব ইত্যাদি পরিস্থিতির মধ্যে পণ্যের চাহিদা ও সরবরাহে ব্যাপকভাবে সমস্যা তৈরি হওয়ায় সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত শিল্পের অন্যতম হলো এশিয়ার পোশাক, জুতা ও ফ্যাশন-সংশ্লিষ্টখাত।

এই সমঝোতা চুক্তির ফলে বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, শ্রীলঙ্কা এবং ভিয়েতনামের পোশাক, জুতা ও ফ্যাশন-সংশ্লিষ্ট খাতের শ্রমিকদের যে সমস্যাগুলো রয়েছে তার নিরসনে আগামী বছরগুলোতে ইউএসএআইডি এবং খাত-সংশ্লিষ্ট বানিজ্য জোট একসাথে কাজ করার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হলো। এর ফলে, আগামী বছরগুলোতে বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, শ্রীলঙ্কা ও ভিয়েতনামের স্থানীয় অংশীদারদের সাথে মিলে ইউএসএআইডি ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানগুলো এই অঞ্চলে আরো টেকসই পোশাক, জুতা ও ফ্যাশন-সংশ্লিষ্ট খাত ও দক্ষ জনশক্তি তৈরি, এই খাতের কলকারখানায় শ্রমিকদের অধিকার ও কল্যাণ এবং নারী শ্রমিকদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে কাজ করবে।

বাংলাদেশ সময়: ০০৫৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০২০
টিআর/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa