ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকরের দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২০
বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকরের দাবি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ বিভিন্ন স্তরের নেতারা। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: রাজশাহীতে গভীর শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হচ্ছে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।  

শনিবার (১৫ আগস্ট) সূর্যোদয়ের পর থেকে রাজশাহীজুড়ে পালন করা হচ্ছে নানান কর্মসূচি।

প্রতিটি কর্মসূচি থেকেই বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা আত্মস্বীকৃত খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে দ্রুত ফাঁসি কার্যকরের দাবি জানানো হচ্ছে।

শনিবার সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজশাহী মহানগরের কুমারপাড়ার আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন, জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানান রাজশাহী সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাদের।

শোকদিবসের কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, সাবেক সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম সরকার, সাবেক উপ-প্রচার সম্পাদক মীর ইশতিয়াক আহমেদ লিমনসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা লীগ, কৃষকলীগ, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ ছাড়াও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মহানগরের কুমারপাড়ায় থাকা স্বাধীনতা চত্বর, রাজশাহী কলেজে থাকা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল, মনিবাজারের শহীদ কামারুজ্জামান মিলনায়তনে থাকা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি, রেলভবন চত্বরে থাকা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে এরপরই শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হয়।  .

এর আগে সকালে জাতির পিতার ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খন্দকার, রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. আবদুল জলিল, রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক একেএম হাফিজ আক্তার, রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. হুমায়ুন কবির, রাজশাহী পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহ, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান প্রমুখ।  

এদিকে, শোকদিবস উপলক্ষে সকাল থেকে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা কালো ব্যাজ ধারণ করেছেন। মহানগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে চলছে কোরআন তেলাওয়াত। এছাড়া রাজশাহীর বিভিন্ন মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণসহ বিভিন্ন সময়ের গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ মাইকের মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

মহানগর আওয়ামীলীগ কার্যালয়সহ শহরজুড়েই দুপুরের পর থেকে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া দিবসটি পালনে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করেছে।  

আলাদাভাবে জাতীয় শোকদিবস পালন করছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। ভোরে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হয়েছে। মনিবাজারে থাকা শহীদ কামারুজ্জামান মিলনায়তন চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অপর্ণ করা হয়।

সকাল ১০টায় সেখানে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা শেষে ‘হে পিতা তোমায় নিয়ে কবিতা’ শিরোনামে আবৃত্তি অনুষ্ঠান ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এদিকে, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, শিশু সদন ও সেফহোম, ছোটমনি নিবাস, শিশু বিকাশ কেন্দ্র, প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন স্কুল ও এতিমখানায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর আলোচনা সভা, হামদ-নাত পরিবেশন, মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দিনটি উপলক্ষে বাদ যোহর মসজিদসমূহে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এছাড়া নিজ নিজ আয়োজনে বিভিন্ন মন্দির, গির্জা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রার্থনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এ দিন বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের রাজশাহী কার্যালয় বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করছে। সন্ধ্যায় তথ্য ও গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় মহানগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর ওপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হবে।

এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী প্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর ওপর লেখা কবিতা আবৃত্তি, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০২০
এসএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa