ঢাকা, রবিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বিষ দিয়ে ৪০ শতাংশ জমির বীজতলা নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৮ ঘণ্টা, আগস্ট ৪, ২০২০
বিষ দিয়ে ৪০ শতাংশ জমির বীজতলা নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা

বরগুনা: একমাত্র আয়ের পথ কৃষি কাজ। আর সেই আয়ের পথ কৃষি ক্ষেতের বীজতলা বিষ দিয়ে নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা।

প্রায় ৪০ শতাংশ জমির বীজতলা নষ্ট করা হয়। এ ঘটনাটি ঘটেছে বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার নাচনাপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে।

ওই গ্রামের ইউনুছ মোল্লা, ছোমেদ, চুন্নু, দলু খান, মহারাজ,আমজেদ,ইব্রাহীম,বাদলসহ একাধিক কৃষকের জমির বীজতলা নষ্ট হয়ে যায়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা আইনের আশ্রয় নেবেন বলে জানিয়েছেন।

জমির মালিক কৃষক মো. ইউনুছ, ছোমেদ মিয়াসহ ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও তাদের প্রায় ১০ একর জমিতে ধান চাষের জন্য ৪০ শতাংশ জমিতে বীজতলা করেন। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে সকলে জমিতে গিয়ে দেখেন ৪০ শতাংশ জমির মধ্যে অধিকাংশ বীজতলা পুড়ে গেছে। এই বীজতলা নষ্ট হওয়ায় প্রায় ১০ একর চাষযোগ্য জমি নিয়ে বিপাকে কৃষকরা।

তারা আরও জানান, একই গ্রামের ইউসুফ ওরফে কালা ইউসুফ তাদের জমিতে বীজতলা নষ্ট করতে কীটনাশক ব্যবহার করেছে। তার সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ থাকায় বিষ দিয়ে তাদের বীজতলা নষ্ট করেছে। এতে তাদের ২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান।

এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইউসুফ মোল্লা বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে। আমি বীজতলা বিষ দিয়ে নষ্ট করিনি। মূলত ওই বীজতলার ওপর আমরাও নির্ভরশীল। যদি সত্য প্রমাণিত হয় তাহলে যে বিচার হবে আমি মেনে নেব।

এ বিষয় পাথরঘাটা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শিশির কুমার বড়াল বলেন, ঘটনা শোনার পরেই আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। কিছু বীজতলা পুড়ে গেছে, তবে বিষ দিয়ে নষ্ট করেছে কিনা এটি তদন্তের বিষয় এখন পর্যন্ত স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৬ ঘণ্টা, আগস্ট ০৪, ২০২০
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa