ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

মানিকগঞ্জের বিনোদন প্রেমীদের ভিড় কালীগঙ্গা সেতুতে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১, ২০২০
মানিকগঞ্জের বিনোদন প্রেমীদের ভিড় কালীগঙ্গা সেতুতে কালীগঙ্গা সেতুুতে দর্শনার্থীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

মানিকগঞ্জ: করোনা আর বন্যায় ঘর থেকে বের হতে পারেনি মানিকগঞ্জবাসী। তবে এবার ঈদে জেলার সকল বিনোদন কেন্দ্র করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে বন্ধ থাকায় ভ্রমণ পিপাসু মানুষ একটু প্রশান্তির নিঃশ্বাস নিতে ছুটে আসছেন বেওথা কালীগঙ্গা নদীর উপরে নির্মিত সেতুতে।

দুপুরের পর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভ্রমণ পিপাসু মানুষ তাদের পরিবার ও প্রিয়জনের সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে চলে আসছেন এই কালীগঙ্গা সেতুতে। কোনো বিনোদন কেন্দ্র খোলা না থাকায় এখানে দর্শনার্থীদের মিলন মেলার সৃষ্টি হয়।

শনিবার (০১ আগষ্ট) দুপুরের পর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কালীগঙ্গা নদীর উপর নির্মিত ব্রিজের উপর ভ্রমণ পিপাসুদের মিলন মেলার চিত্র দেখা যায়। আগতদের জন্য পুলিশ পর্যাপ্ত নিরাপত্তা জোরদার করেছেন যাতে কেউ ইভিটিজিংয়ের শিকার না হন।  

কালীগঙ্গা সেতুতে ভ্রমণ করতে এসে বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা হাসান মাহমুদ বাংলানিউজকে বলেন, ‘করোনার কারণে পরিবারের সদস্য নিয়ে কোথাও যেতে পারিনি। আজ যেহেতু ঈদ সে জন্য স্ত্রীকে নিয়ে এই সেতুতে বেড়াতে এসেছি। ভালো লাগলো কারণ সেতুতে পুলিশ পর্যাপ্ত নিরাপত্তার জন্য সকল প্রস্তুতি নিয়েছে। ’

সাইমা নামে আরও একজন দর্শানার্থী বলেন, ‘আমি আমার বাচ্চাকে নিয়ে এ সেতুতে বেড়াতে এসেছি।  করোনার কারণে বাসায় থাকতে থাকতে ক্লান্ত হয়ে গেছি। এ কারণেই পরিবার ও বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে এলাম। ' 

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান বাংলানিউজকে বলেন, বেউথার কালীগঙ্গা নদীর উপর ভ্রমণ পিপাসুদের ভিড় দুপুরের পর থেকেই বাড়তে থাকে। সকলের নিরাপত্তার জন্য আমরা পুলিশ সদস্য মোতায়েন করেছি। যাতে কোনো ইভটিজার কোনো দম্পতি বা পরিবারের সদস্যদের হয়রানি না করতে পারে।  

কেউ যাতে অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যে না পড়েন তার জন্য সকল প্রকার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০১, ২০২০
ইউবি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa