ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

বঙ্গোপসাগরে অর্ধশত ট্রলার নিয়ে জেলেদের জলবন্ধন 

উপজেলা করসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৫ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২০
বঙ্গোপসাগরে অর্ধশত ট্রলার নিয়ে জেলেদের জলবন্ধন 

বঙ্গোপসাগরের মোহনা থেকে: বঙ্গোপসাগরের মোহনা অর্থাৎ বিষখালী, বলেশ্বর, পায়রা নদীতে জেলেদের ত্রিমুখী দ্বন্দ্ব নিষ্পত্তি, আধিপত্য বিস্তার রোধসহ সুষ্ঠুভাবে মাছ শিকারের দাবিতে অর্ধশত মাছ ধরা ট্রলার নিয়ে কয়েকশ’ জেলে পানিতে জলবন্ধন করেছেন। 

রোববার (১৪ জুন) দুপুরে এ ব্যতিক্রম কর্মসূচি পালন করেন জেলেরা।  

জলবন্ধনে পদ্মা গ্রামের জেলে মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমরা আমাদের পূর্ব পুরুষ থেকে নদীতে নির্ধারিত জায়গায় জাল পেতে মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করি।

কিন্তু প্রতিবেশী চর লাঠিমারা গ্রামের কয়েকশ’ জেলে আমাদের সে জায়গায় এসে জোরপূর্বক মাছ শিকার করছে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার জন্য এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছে পর্যন্ত গিয়েছি। এমপির নির্দেশনানুযায়ী সিদ্ধান্ত না দেওয়া পর্যন্ত কেউ নদীতে জাল পাততে পারবেন না। তাই মাছ শিকার থেকে বিরত রয়েছি। কিন্ত নির্দেশনা অমান্য করে অপর দু’পক্ষ নদীতে জাল ফেলে মাছ শিকার করছেন। আমরা এর প্রতিবাদে রোববার সাগরে জলবন্ধন করেছি।  
জলবন্ধন।  ছবি: বাংলানিউজ
জলবন্ধন থেকে জেলেরা অভিযোগ করে জানান, জোরপূর্বক নদীতে মাছ শিকার করা সোহাগ নামে এক জেলে দস্যুবাহিনীর সক্রিয় সদস্য এবং তিনি র‌্যাব, কোস্টগার্ড ও গোয়েন্দা বাহিনীর হাতে একাধিকবার আটকও হয়েছিলেন।  

এদিকে সোহাগের কাছে প্রশ্ন করা হলে এর কোনো সদোত্তর দিতে পারেননি তিনি।

পাথরঘাটা সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ বাংলানিউজকে বলেন, একজন খাবেন, আরেকজন পরিবার-পরিজন নিয়ে না খেয়ে থাকবেন! তা হতে পারে না। নদী তো সবার জন্য। তাই তাদের নিজেদের মধ্যে সমন্বয় করে মাছ ধরতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa