ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বাংলাদেশি নিহত, ব্যাখ্যা দিল বিএসএফ

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর লোগো।

walton

ঢাকা: ঠাকুরগাঁও সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে এক বাংলাদেশি নাগরিক নিহতের ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়েছে সংস্থাটি।

শুক্রবার (০৩ এপ্রিল) বিএসএফ এর পক্ষ থেকে এই ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

বিএসএফ এর ব্যাখ্যায় উল্লেখ করা হয়, পহেলা এপ্রিল রাত ৮টা ৫০ মিনিটে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের চাকলাগড় ১৭১ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের সঙ্গে এক দুর্ঘটনা ঘটে। সেখানে ভারতীয় সীমান্তের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে ফেনসিডিলি পাচার করা হচ্ছিল। সতর্ক করার পরও চোরাকারবারিরা সেসময় বিএসএফ এর পেট্রোলরত সদস্যদের ওপর আক্রমণ করে। একইসঙ্গে সীমান্তে বেড়া কেটে ফেলে। সেসময় বাধ্য হয়েই সীমান্ত রক্ষীবাহিনী গুলি চালায়। তখন চোরাকারবারিরা পালিয়ে যায়। তাদের মধ্যে একজন আহত হয়। পরে আহত ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

এর আগে গত বছর ঢাকায় দুই দেশের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ সংস্থার ৬ষ্ঠ মহাপরিচালক পর্যায়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সে বৈঠকে সীমান্তে ফেনিসিডিলসহ মাদক চোরাচালন প্রতিরোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

১ এপ্রিল রাতে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার জওগাঁও গ্রামের  যুবক জয়নাল আবেদিন বিএসএফর গুলিতে নিহত হন। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, জয়নাল আবেদিনের শ্বশুরবাড়ি ভারতের উত্তর দিনাজপুরে। তিনি বালিয়াডাঙ্গি সীমান্ত দিয়ে শ্বশুর বাড়ি যাতায়াত করতেন। সেদিনও  তিনি শ্বশুর বাড়ি যাচ্ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০১১ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৩ , ২০২০
টিআর/এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: করোনা ভাইরাস
সিটি ব্যাংক প্রোডাক্ট আর সার্ভিসে আনছে প্রযুক্তির ছোঁয়া
প্রধানমন্ত্রীর অনুদান পেলো ৩৯৭টি মসজিদ
সিআরপিকে ১০ কোটি টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী
তামাদির বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা চেয়ে নোটিশ
বিএনপি নেতার মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক


আইপিএল আয়োজন করতে চায় আরব আমিরাত
চার কার্যদিবস পর সূচক বাড়লো পুঁজিবাজারে
পেশা পরিচালনা করতে পারবেন গাইবান্ধার সেই ১৭ আইনজীবী
করোনায় মারা গেলেন সাংবাদিক মোনায়েম খান
পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু