বরিশালে কোয়ারেন্টিনে থাকা ৮৯৯ জনকে ছাড়পত্র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী

walton

বরিশাল: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বরিশাল বিভাগে ২ হাজার ৫৮৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১১৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনের (বাড়িতে পৃথক কক্ষে) আওতায় আনা হয়েছে। এসব ব্যক্তির বেশির ভাগই বিদেশফেরত।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০ টায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস বাংলানিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, কোয়ারেন্টিনে থাকা অধিকাংশই প্রবাসী। এছাড়া বরগুনা ও বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন থাকা ৪ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। নতুন করে করোনায় সন্দেহে ভর্তি হয়েছেন আরও দুইজনকে। তবে বরিশাল বিভাগে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, গত ১০ মার্চ থে‌কে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের উপসর্গ না থাকায় কোয়ারেন্টিন শেষ ৮৯৯ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯৮ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। কোয়ারেন্টিন থেকে বরিশাল নগরে পাঁচজন, জেলায় ১৪৬ জন, পটুয়াখালীতে ৩১৩ জন, ভোলায় ১২০, পিরোজপুরে ১২৬ জন, বরগুনায় ১২৯ জন ও ঝালকাঠিতে ৫৮ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা সন্দেহে ভর্তি হওয়া দুইজন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২০ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২০
এমএস/ওএইচ/

‘কারণ ছাড়াই’ ইউএসটিসিতে নার্সসহ ৩৪ জনকে চাকুরিচ্যুত
আইসিসিআর'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রীভা গাঙ্গুলির অভিনন্দন
পাবনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১
করোনা: শবে বরাতের রাতে হয়নি হালুয়া-রুটি বিতরণ
 করোনা: দিনভর অভিযানে বরিশালে লাখ টাকা জরিমানা


টুঙ্গিপাড়ায় ২ করোনা রোগী শনাক্ত, ৬ বাড়ি লকডাউন
তিতাসে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত
করোনাকালীন কর্মস্থলে অনুপস্থিত: ফেঁসে যাচ্ছেন ১১ কর্মকর্তা
স্বাস্থ্যকর্মীদের থাকার জন্য হোটেল ছেড়ে দিলেন সোনু সুদ
চাল আত্মসাতের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ ২ জনের কারাদণ্ড