ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২২ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

অল্পের জন্য রক্ষা পেল সাড়ে আটশ লঞ্চ যাত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২০
অল্পের জন্য রক্ষা পেল সাড়ে আটশ লঞ্চ যাত্রী নোঙর করা লঞ্চ। ছবি: বাংলানিউজ

মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের চরকিশোরগঞ্জে মেঘনা নদীর চরে গ্রিন ওয়াটার-১০ নামে ঢাকার সদরঘাট থেকে ছেড়ে আসা চাঁদপুরগামী একটি লঞ্চ জরুরিভিত্তিতে নোঙর করেছে।

ধারণক্ষমতার দ্বিগুণ যাত্রী নেওয়ার কারণে মেঘনার ঢেউয়ের তোড়ে লঞ্চটিতে পানি উঠে পড়ে।   এ সময় তড়িঘড়ি করে লঞ্চটি নদীর চরে নোঙর করেন চালক।

এতে প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন প্রায় সাড়ে আটশ যাত্রী। এদিকে বোগাদাদিয়া-৯ লঞ্চের মাধ্যমে প্রায় শতাধিক যাত্রীকে নিরাপদে গন্তব্যে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিচুর রহমান বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, অতিরিক্ত যাত্রীবোঝাই করার কারণে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। লঞ্চটি নদীর চরে নোঙর করা হয়েছে। অন্য একটি লঞ্চ ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়েছে। সেটি এলে যাত্রীদের সেই লঞ্চে করে গন্তব্যে পাঠানো হবে।

নারায়ণগঞ্জের কলাগাছিয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, লঞ্চের ধারণক্ষমতা প্রায় ৪শ যাত্রীর। কিন্তু প্রায় সাড়ে আটশ যাত্রীবোঝাই করে মেঘনা নদীতে আসার পরে লঞ্চটির ডেকে পানি উঠে যায়। চালক তড়িঘড়ি করে লঞ্চটি চরে নোঙর করতে সক্ষম হন। এতে কোনো যাত্রীর ক্ষতি হয়নি। বিকল্প হিসেবে অন্য লঞ্চের যাত্রীদের পারাপারে ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, যদিও লঞ্চের স্টাফরা দাবি করছেন বাল্কহেডের ধাক্কায় লঞ্চে পানি উঠেছে। কিন্তু, প্রাথমিকভাবে আমাদের তা মনে হয়নি। অতিরিক্ত যাত্রীর কারণেই লঞ্চটি ডুবতে বসেছিল।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৫৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২০
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa