খোয়াই নদী থেকে স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার, কিশোর আটক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাসপাতালের সামনে শিশুটির মরদেহ ও ইনসেটে শিশু ইসমাইল। ছবি: বাংলানিউজ

walton

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার চরহামুয়া এলাকায় নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর খোয়াই নদী থেকে মো. ইসমাইল হোসেন বিদয় নামে এক স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় এক কিশোরকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে।



সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ইসমাইল সদর উপজেলার উত্তর তেঘরিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ফারুক মিয়ার ছেলে ও তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র। থানায় আটক সায়মন মিয়া (১৪) ওই এলাকার আব্দুস শহীদের ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত ১০ জানুয়ারি বিকেলে বিদেশ থেকে বাবার পাঠানো দামি মোবাইল নিয়ে নাটকের দৃশ্য তৈরির কথা বলে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি ইসমাইল। পরদিন তার পরিবারের পক্ষ থেকে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় সাধারণ ডয়েরি করা হয়। পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করা হয়। একপর্যায়ে সোমবার খোয়াই নদীতে তার মরদেহ ভেসে উঠলে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. আবু নাঈম মিয়া বলেন, মরদেহের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিঃসন্দেহ এটি হত্যাকাণ্ড। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

নিহতের চাচি মাসুদা আক্তার জানান, সায়মন ইসমাইলকে মোবাইলে নাটক বানিয়ে ফেসবুকে প্রচারের মাধ্যমে টাকা আয়ের কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। ইসমাইলকে হত্যা করা হয়েছে। এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: হবিগঞ্জ মরদেহ উদ্ধার
ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যু
ফেনী ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী
মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশকালে আটক ৪ 
জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলরক্ষক সোহান দুর্ঘটনায় নিহত
গ্রন্থমেলায় মুহাম্মদ আসাদুজ্জামানের ‘ভালোবাসার গল্প’


কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসে অন্যরকম একুশ
চুনারুঘাট সীমান্তে ভারতীয় মুদ্রাসহ আটক ৫
শহীদদের ‘স্মৃতিচিহ্ন’ এঁকে পুরস্কার পেলো শিশুরা
অধিনায়কত্বটা এখন উপভোগ করি: মুমিনুল
বাবার প্রতিকৃতির সামনে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি