ঢাকা, শনিবার, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৮ আগস্ট ২০২০, ১৭ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

চিকিৎসকের অবহেলায় মেহেরপুরে রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩, ২০১৯
চিকিৎসকের অবহেলায় মেহেরপুরে রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

মেহেরপুর: মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় এবার প্রাণ গেল ইউনিলিভার কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি ঝন্টু হোসেনের (৩৫)। ঝন্টু হোসেন মেহেরপুর সদর উপজেলার স্টেডিয়াম পাড়ার দীন মোহাম্মদের ছেলে।

শনিবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুর ঘটনাটি ঘটে। এঘটনায় রোগীর স্বজনরা হাসপাতাল চত্ত্বরে বিক্ষোভ করে বিচার দাবি করেন।

এসময় রোগীর স্বজনদের তোপের মুখে পড়েন চিকিৎসকরা।

নিহতের পরিবার সূত্রে জান গেছে, শহরের স্টেডিয়াম পাড়া এলাকার দীন মোহাম্মদের ছেলে ইউনিলিভার কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি ঝন্টু রাইপুর গ্রামের একটি দোকানে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

এসময় ইমার্জেন্সিতে কর্তব্যরত ছিলেন ডা. ওয়াদুদুর রহমান। রোগী প্রায় আধাঘণ্টা পড়ে থাকলেও তাকে কোনো ধরনের চিকিৎসা দেননি ডা. ওয়াদুদুর রহমান। এক পর্যায়ে তার অবস্থার আশঙ্কাজনক হয়ে পড়লে তিনি একটি ইনজেকশন দেন। ইনজেকশন দেওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই রোগী মারা যান। এঘটনার পরপরই ডা. ওয়াদুদুর রহমান ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এবিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আলোক কুমার বাংলানিউজকে বলেন, রোগীর অস্বস্তি লাগছিল। এ কারণে একটা ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিলো; সঙ্গে গ্যাসের ইনজেকশনও দেওয়া হয়। কিন্তু সে তো আমাদের কোনো সময়ই দেইনি। এরকম ঘটনা ঘটতেই পারে।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান এবিষয়ে বাংলানিউজকে বলেন, লিখিত কোনো অভিযোগ এখনও পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৩০, নভেম্বর ০৩, ২০১৯
এমএমইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa