ঢাবি ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারেনি ছাত্রদল

দাবি না মানলে লাগাতার ধর্মঘটের হুমকি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

পুলিশের বাধার মুখে মঙ্গলবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারেনি ছাত্রদল। ক্যাম্পাসে সোমবার ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার পর আজ সকালে ছাত্রদল ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়।

ঢাকা: পুলিশের বাধার মুখে মঙ্গলবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারেনি ছাত্রদল। ক্যাম্পাসে সোমবার ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার পর আজ সকালে ছাত্রদল ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়।


বাধা পেয়ে ছাত্রদল শাহবাগের কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরীর সামনে সমাবেশ করে। অপরদিকে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সমাবেশ করেছে ছাত্রলীগ।

জানা যায়, সকাল ১১ টার দিকে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু এবং সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আলিমের নেতৃত্বে ছাত্রদল ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুুলিশ বাধা দেয়।  

ক্যাম্পাসে দায়িত্বরত পুলিশের একজন কর্মকর্তা বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডি-কে বলেন, ছাত্রদলকে ক্যাম্পাসে প্রতিরোধ করার জন্য ছাত্রলীগ সকাল থেকে অবস্থান নেয়। পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কায় ছাত্রদলকে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।  

শাহবাগের সমাবেশে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু বলেন, পুলিশের বাধার মুখে আমরা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারলাম না। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ যদি ৩০ জুনের মধ্যে আমাদের দাবি-দাওয়া মেনে না নেয় তবে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো।

উল্লেখ্য, সোমবারের হামলার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও প্রক্টরের পদত্যাগসহ তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ছাত্রদল। জুনের ৩০ দিনের মধ্যে দাবি মানা না হলে ১ জুলাই থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে লাগাতার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে তারা।

এদিকে ক্যাম্পাস পরিস্থিতি নিয়ে শাহবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডি-কে বলেন, “সকালে ছাত্রদল শাহবাগের কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরীর সামনে সমাবেশ করে চলে গেছে। ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে”।

এদিকে গতকালের ঘটনার পর আজ সকাল থেকেই ছাত্রলীগে নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাসে জড়ো হতে থাকেন। একপর্যায়ে ছাত্রদল ক্যাম্পাসে ঢুকছে এমন খবরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। অপরাজয় বাংলার পাদদেশে ছাত্রলীগ এক সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শান্তি নষ্ট করে ছাত্রদল দেশকে অস্থিাতিশীল করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি গতকালের ঘটনাকে ছাত্রদলের পূর্বপরিকল্পিত বলে উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, সোমবার ঢাবি ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের হামলায় ছাত্রদলের প্রায় ৩০ জন নেতা-কর্মী আহত হন। আহতদের মধ্যে ৬জনকে ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার যুগ্ম সম্পাদক মামুনুর রশিদ, সূর্যসেন হলের সভাপতি সাহীদ মজুমদার, জিয়া হলের সভাপতি ইফাত হোসেন রিকু, ঢাবির সহ-সভাপতি মোস্তাক আহম্মেদ এবং ঢাবির সহ-সম্পাদক সিদ্দীকী নাজমুল এতে নেতৃত্ব দেন। ওই ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ১৩৪৪ ঘণ্টা, ২২ জুন, ২০১০।
এএডি/টিএসএ/এনএস/জেএম

Nagad
নালিতাবাড়ী-ঝিনাইগাতীতে ২৫ গ্রাম প্লাবিত
বিপিও উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের আহ্বান পলকের
বিনিয়োগ আকর্ষণে নীতিমালা সংস্কারের পরামর্শ
ভুয়া চিকিৎসকসহ ৩ জনকে কারাদণ্ড, হাসপাতাল সিলগালা
পশ্চিমবঙ্গে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,৫৬০ জন


নভোএয়ারে ভ্রমণ করলে ফ্রি কাপল টিকিট
‘টাউট’ শহীদুলের আইন পেশা, আছে মানবাধিকার সংগঠন!
সব বিভাগে ভারী বর্ষণের শঙ্কা, বন্যার অবনতি
অর্ধেক দামে মিলবে কৃষি যন্ত্রপাতি, একনেকে প্রকল্প
খুলনায় নতুন করোনা রোগী শনাক্ত ৭৩, মোট ৩১০৮