ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

জাতীয়

রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণে শিক্ষকদের মর্যাদা নষ্ট হচ্ছে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণে শিক্ষকদের মর্যাদা নষ্ট হচ্ছে

শরীয়তপুর: বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ও মজিদ-জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি একেএম শহীদুল হক বলেছেন, শিক্ষকরা হচ্ছেন ছাত্রদের গুরুজন। বাবা-মা’র পরেই শিক্ষকদের মর্যাদা। ছাত্রদের আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব শিক্ষকদের। শিক্ষকদের মর্যাদা সবার উপরে। কিন্তু বর্তমানে দেখা যাচ্ছে শিক্ষক সমাজ তাদের মর্যাদা ধরে রাখতে পারছেনা। রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণে আজকে নিজেরাই তাদের মর্যাদা নষ্ট করছেন।  

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার মজিদ-জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল অ্যান্ড কলেজে আন্তর্জাতিক শিক্ষক দিবস পালন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।  

শহীদুল হক বলেন, সম্প্রতি বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে তার সহপাঠীরা পিটিয়ে হত্যা করেছে।

রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণেই এক সহপাঠী আরেক সহপাঠীকে পিটিয়ে মেরে ফেলতে দ্বিধা করছে না। যারা হত্যা করেছে তারাও মেধাবী ছিল। এজন্য শুধু মেধাবী হলে হবেনা আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে।

কলেজের অধ্যক্ষ ফরিদ আল হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ভোজেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরুল হক বেপারী, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি ও দৈনিক রুদ্রবার্তার সম্পাদক শহীদুল ইসলাম পাইলট প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে পাবলিক পরীক্ষায় বৃত্তিপ্রাপ্ত মজিদ-জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩৮০ জন শিক্ষার্থীর হাতে উপবৃত্তির টাকা তুলে দেন শহীদুল হক। পরে ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ছাত্র-শিক্ষক অভিভাবক ও বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa