উপজেলার উপদেষ্টা থেকে এমপিদের বাদ দেওয়ার প্রশ্ন অবান্তর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংসদে কথা বলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

walton

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: সংসদ সদস্যদের (এমপি) উপজেলা পরিষদের উপদেষ্টা থেকে বাদ দেওয়ার প্রশ্নকে ‘অবান্তর’ বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় সরকার বিভাগের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। 

তিনি এও বলেন, কাজের মান ভালো করার জন্য এমপিদের উপদেষ্টা হিসেবে থাকা বাঞ্ছনীয়। 

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি রুমিন ফারহানার এক সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

রুমিন ফারহানা তার প্রশ্নে বলেন, উপজেলা পরিষদ আইনের ২৫ ধারায় সংসদ সদস্যদের উপদেষ্টা রাখার বিধান স্বাধীনভাবে কাজ করার বাধা তৈরি করে। এটি সংবিধানের ৫৯ ধারার পরিপন্থি। গুরুত্বপূর্ণ স্থানীয় সরকার ইউনিট সত্যিকার অর্থে কার্যকর করতে এই ধারা সংশোধনী এনে সংসদ সদস্যদের বাদ দেবার কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হবে কি না?

এই প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, এই প্রশ্নটা কেন করা হয়? এটা বাইরে থেকে মাঝে মধ্যে শুনতাম। সংসদ সদস্যরা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। ওই এলাকার জনগণের দেখভাল করার অধিকার তারা রাখেন। এমপিরা যদি উপজেলা পরিষদের উপদেষ্টা হিসেবে থাকেন, প্রয়োজনীয় উপদেশ দেন তাহলে কাজের মান অনেক বৃদ্ধি পায়। 

‘কোথা থেকে এ রকম অবান্তর প্রশ্ন আসছে, সংসদ সদস্যরা থাকলে সেখানে উপজেলা পরিষদ স্বাধীনভাবে কাজ করতে অসুবিধা হবে? স্বাধীনতার অর্থ কী? সরকার কর্তৃক যে বরাদ্দ দেওয়া হবে সেগুলো ভালোভাবে কাজ করছে কি না, এমপিরা উপস্থিত থেকে দেখভাল করলে কাজের মান ভালো হয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভালো চলে, আইন শৃঙ্খলার উন্নতি হয়।’

তিনি বলেন, এমপিরা অবদান রাখলে আমার মনে হয় না এখানে কোনোভাবেই আপত্তিকর মনে হতে পারে। এমপিদের উপদেষ্টা থাকাটাই অনেক বেশি বাঞ্ছনীয়। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯
এসকে/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সংসদ অধিবেশন
কুমিল্লা লকডাউন
খাগড়াছড়িতে শতাধিক শ্রমিককে আটক করে হোম কোয়ারেন্টিনে
করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান আমতলী আ’লীগ সভাপতি
ভবিষ্যতের আগুয়েরো হবে মার্তিনেস: ক্রেসপো 
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিও ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত


স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন ৬০৫ মৃত্যু
‘কখনো ভাবিনি এভাবে মসজিদে জুমা হবে না’
খেলা নেই, কলকাতার বেটিংচক্র ইস্যু লকডাউন
করোনা আক্রান্ত আরও এক সাংবাদিক
তাড়াশে মৃত পোশাক শ্রমিক করোনা আক্রান্ত ছিলেন না