ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বঙ্গবন্ধু একটি নাম, একটি ইতিহাস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১৯
বঙ্গবন্ধু একটি নাম, একটি ইতিহাস সভায় বক্তব্যে রাখছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

কুমিল্লা: বাংলাদেশ ও বাঙালির সবচেয়ে হদয়বিদারক ও শোকের দিন ১৫ আগস্ট। প্রতিবছর দিনটি আসে বাঙালির হৃদয়ে শোক আর কষ্টের দীর্ঘশ্বাস হয়ে। ইতিহাসের বেদনাবিধুর ও বিভীষিকাময় একটি দিন। ১৯৭৫ সালের এ দিনে সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কিত অধ্যায়। সেদিন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্য।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে কুমিল্লা জেলা (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল একথা বলেন।

তরুণদের উদ্দেশ্যে অর্থমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি নাম, একটি ইতিহাস।

বঙ্গবন্ধু ছিলেন ইতিহাসের বাঁক-ঘোরানো এক সিংহপুরুষ। তিনি জীবনের বিনিময়ে বাঙালি জাতির জন্য রচনা করেন ইতিহাসের এক অমোঘ অধ্যায়। পৃথিবীতে কোনো জাতিই মাত্র নয় মাসে স্বাধীনতা লাভ করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধুর এক ভাষণেই উদ্বুদ্ধ গোটা জাতি কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির ইতিহাসের এক অবিভাজ্য সত্তা। জাতির ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ পুরুষ বঙ্গবন্ধুর অমর কীর্তি এ স্বাধীন বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু একটি নাম, বঙ্গবন্ধু একটি বিশ্বাস, বঙ্গবন্ধু একটি দেশ, বঙ্গবন্ধু একটি স্বপ্ন, বঙ্গবন্ধু আমাদের জীবন সত্তা, বঙ্গবন্ধুর কখনও মৃত্যু হতে পারে না। ঘাতকচক্র বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তার স্বপ্ন ও আদর্শের মৃত্যু ঘটাতে পারেনি। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন জাতির জনকের নাম এ দেশের লাখো কোটি বাঙালির অন্তরে চির অমলিন, অক্ষয় হয়ে থাকবে।  

‘আসুন, আমরা জাতির জনককে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করি। তার ত্যাগ ও তিতিক্ষার দীর্ঘ সংগ্রামী জীবনাদর্শ ধারণ করে সবাই মিলে একটি অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলি। প্রতিষ্ঠা করি জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ। জাতীয় শোকদিবসে এ হোক আমাদের অঙ্গীকার। ’

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, জেলা (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক, জেলা (দ.) আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০১৯
আরআইএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa