php glass

উল্লাপাড়ায় রেলক্রসিংয়ে দুর্ঘটনা, নিহত বেড়ে ১১

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

দুর্ঘটনায় নিহতদের নিজ নিজ এলাকায় নামাজে জানাজা সম্পন্ন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ে উঠে যাওয়া বিয়ের মাইক্রোবাসকে ট্রেনের ধাক্কা দেওয়া ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১ জনে দাঁড়িয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে সিরাজগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন মজুমদার এ দুর্ঘটনায় মোট ১১ জন নিহত হওয়ার বিষয়টি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেন। 

তিনি বলেন, সোমবার (১৫ জুলাই) রাতে বর-কনেসহ নিহত ১০ জনের মরদেহ পেয়েছি। পরে জানা গেছে আরও একজনের মরদেহ আগেই স্বজনরা নিয়ে গেছেন। এতে করে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ জনে। 

ইতোমধ্যে নিহতদের মরদেহ নিজ নিজ এলাকায় দাফন সম্পন্ন হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ তদন্তে রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গঠন করা হয়েছে পৃথক দু’টি কমিটি। 

নিহতরা হলেন- সদ্য বিবাহিত বর সদর উপজেলার কান্দাপাড়া গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে রাজন শেখ (৩২), কনে উল্লাপাড়া উপজেলার এনায়েতপুর গুচ্ছগ্রামের মৃত গফুর শেখের মেয়ে সুমাইয়া খাতুন (২১), বরের মামা কান্দাপাড়া গ্রামের শামীম হোসেনের ছেলে আলিফ ওরফে বায়েজিদ (৯), বরযাত্রী চুনিয়াহাটি গ্রামের ভাষা শেখ (৫৫), রামগাতি এলাকার আব্দুল মতির ছেলে আব্দুস সামাদ (৫০), তার ছেলে শাকিল (২০), বরের বন্ধু দিয়ারধানগড়া  এলাকার আলতাফ হোসেনের ছেলে শরীফুল ইসলাম (২৬), চাচাতো ভগ্নিপতি রায়গঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণদিয়ার গ্রামের আলম শেখের ছেলে খোকন শেখ (৩৫), কনের বড় ভাই উল্লাপাড়া উপজেলার এনায়েতপুর গুচ্ছগ্রামের আশরাফ আলীর স্ত্রী মমতা বেগম (৩৫), মাইক্রোবাস চালক কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল গ্রামের নূরে আলম স্বাধীন (৫৫), চালকের সহকারী সয়াধানগড়া এলাকার সুরুত আলীর ছেলে আব্দুল আহাদ সুজন (২১)।  

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- বরের ভগ্নিপতি পৌর এলাকার রায়পুর এলাকার আবু মুছার ছেলে সুমন (৩০), কান্দাপাড়া গ্রামের ইয়াকুবের ছেলে বায়েজিদ (২৮), মাসুদ সরকারের ছেলে ইমরান সরকার (২৭), বাবুর ছেলে লাদেন (১৬) ও টুটল (৩০)। 

পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়া রাতেই মরদেহগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। মঙ্গলবার সকাল ১১টার থেকে দুপুর (বাদ জোহর) পর্যন্ত স্ব-স্ব এলাকায় নিহতদের নামাজে জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে ২৫ হাজার ও আহতদের ১০ হাজার করে টাকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান ওসি হারুন মজুমদার।

সোমবার সন্ধ্যার দিকে ঢাকা-ঈশ্বরদী রেল সড়কে উল্লাপাড়া উপজেলার বেতকান্দি এলাকায় অরক্ষিত ক্রসিং পার হওয়ার সময় পদ্মা এক্সপ্রেসের ধাক্কায় প্রাণ হারান বিয়ের মাইক্রোবাসে থাকা বর-কণেসহ ১১ জন যাত্রী। 

** উল্লাপাড়ায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ৯ যাত্রী নিহত
** ক্রসিংয়ে বিয়ের গাড়িতে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১০
** ফুলশয্যা হলো না রাজন-সুমাইয়ার

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১৯
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সিরাজগঞ্জ ট্রেন দুর্ঘটনা
রাজনীতিকে ব্যবসা বানাতে চান অনেকে: বিপ্লব বড়ুয়া
 আসন্ন নির্বাচনে অংশ নিতে ‘প্রচণ্ড চাপে’ হিলারি 
প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির এমপি হারুনের ধন্যবাদ
পিএসএলে নেই কোনো বাংলাদেশির নাম
রোহিঙ্গাদের এনআইডি: ২ ইসি কর্মচারী ৭ দিনের রিমান্ডে


বগুড়ায় চার জেলার ২৮ করদাতাকে সম্মাননা
সুন্দরবনে অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক ৫৫
কলকাতায় শীতের আমেজ
‘সুস্থ জীবনযাপনে খাবার গ্রহণ পরিমিত হওয়া প্রয়োজন’
আরেকটা ‘চমক’ দেখাতে পারবে বাংলাদেশ?