ঢাকা, রবিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

জাতীয়

সামান্য কমেছে সুরমার পানি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৬ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৯
সামান্য কমেছে সুরমার পানি প্লাবিত এলাকা। ছবি: বাংলানিউজ

সুনামগঞ্জ: কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জে বন্যা দেখে দিলেও বৃষ্টির পরিমাণ কমে যাওয়ায় বর্তমানে পানি কিছুটা কমেছে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) দুপুরের পর থেকে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৮৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যা সকালে ছিল ৯৮ সেন্টিমিটার।

 সুনামগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৬৫ মিলিমিটার।

এদিকে বন্যা পরিস্থিতি ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ যাতে দ্রুত বন্যা থেকে মুক্তি পায় সেজন্য জুমার নামাজের পর জেলার সব মসজিদে বিশেষ মোনাজাত করা হয়েছে। তবে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়লে অথবা ভারতীয় পাহাড়ি ঢলের পানি এলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।

জেলার বিশ্বম্ভপুর জামালগঞ্জ ও তাহিপুর প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মধ্যে শুকনা খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। অনেকেই বাড়িতে পানি ওঠায় বাড়ির পাশের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিয়েছেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিকি বলনে, বর্তমানে সুরমা নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। এখন সুরমার পানি বিপদসীমার ৮৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যদি টানা বৃষ্টিপাত না হয় তাহলে নদীর পানি আরও কমবে।

জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল বাংলানিউজকে বলেন, নদীর পানি কিছুটা কমেছে। তবে এখনও পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে ৪ হাজার ৩শ’ পরিবার। সব ইউনিয়নে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া বিশুদ্ধ পানির জন্য সবাইকে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও ফিটকিরি দেওয়া হচ্ছে। যাতে সবাই বিশুদ্ধ পানি পান করতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৯
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa