php glass

জুনে খুলনায় ৩ খুন, ৫ ধর্ষণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সভায় বক্তব্য রাখছেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

খুলনা: খুলনা মহানগর ও জেলায় জুনে তিনটি খুন ও পাঁচটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির জুলাইয়ের সভায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুরে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে তার সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় জানানো হয়, খুলনা জেলায় গত জুনে চুরি পাঁচটি, খুন দু’টি, অস্ত্র আইন একটি, নারী ও শিশু নির্যাতন ১০টি, নারী ও শিশু পাচার একটি, মাদকদ্রব্য ৭১টি এবং অন্যান্য আইনে ৮২টিসহ মোট ১৭২টি মামলা দায়ের হয়েছে। জেলায় মে ২০১৯ এ সংখ্যা ছিল ১৯৩টি। খুলনা মহানগরে গত মাসের তুলনায় ২১টি মামলা কমেছে।

খুলনা মহানগরে জুনে চুরি ছয়টি, খুন একটি, ধর্ষণ পাঁচটি, নারী ও শিশু নির্যাতন ১১টি, মাদকদ্রব্য ১১৫টি এবং অন্যান্য আইনে ৪৫টিসহ মোট ১৮৩টি মামলা দায়ের হয়েছে। খুলনা মহানগরে মে ২০১৯ এ সংখ্যা ছিল ১৮৩টি।

সভায় অবৈধ হাউজিং ব্যবসার মাধ্যমে ভূমিদস্যুতা, সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সেবার ক্ষেত্রে ধীরগতি দূরীকরণ, মহাসড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধ, মরফিন-প্যাথেড্রিন জাতীয় ওষুধের অপব্যবহার রোধসহ জনগুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির উপদেষ্টা ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ বলেন, জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। দেশের আইন-শৃঙ্খলা ভালো থাকলে সবাই ভালো থাকবে। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার কারণে দুর্ঘটনা বেশি ঘটে, তাই এটি নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন। এ সময় তিনি মাদকের সঙ্গে জড়িতে ব্যক্তিদের সঙ্গে সম্পর্ক না রাখতে সবাইকে পরামর্শ দেন।

সভায় পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ জানান, মহাসড়ক থেকে অবৈধ যান অপসারণে জনপ্রতিনিধিদের সহায়তা প্রয়োজন। সব মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন নিশ্চিত করতে পারলে মোটরসাইকেল চুরি এমনিতেই বন্ধ হয়ে যাবে।

ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, খুলনা নগরের বহুতল ভবনসমূহের অগ্নিনিরাপত্তা যাচাই করতে পরিচালিত পরিদর্শন কার্যক্রম শেষে পরামর্শ দিয়ে সব ভবন মালিককে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এ সময় বেসরকারি ক্লিনিক ও ফার্মেসির মাধ্যমে মরফিন, প্যাথেড্রিনের অবৈধ হস্তান্তর ও ব্যবহার প্রতিরোধে নজরদারি বাড়াতে জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণ বিভাগকে সভা থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়।

হেলাল হোসেন বলেন, কৃষি জমির উপর আবাসন ও শিল্প প্রতিষ্ঠান তৈরি করা যাবে না। জেলা কালেক্টরের অনুমতি ব্যতিত কোনো জমির ভূমিরূপ পরিবর্তনের সুযোগ নেই। শিল্প-কারখানাসমূহ শিল্প এলাকাতেই করতে হবে। অবৈধ হাউজিং ব্যবসা ও ভূমিদস্যুতা বন্ধ হওয়া একান্ত প্রয়োজন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৫ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
এমআরএম/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: খুলনা
উদ্যোক্তা হয়ে অন্যকে চাকরি দিন: ইউজিসি চেয়ারম্যান
খুলনা বিভাগীয় সমাবেশের অনুমতি পেলো বিএনপি
বগুড়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ
নুসরাত হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিতে আদালতে ৪ সাক্ষী
আগৈলঝাড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবক নিহত


হালিশহর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজে নিয়োগ
‘থর’র হাতুড়ি যাচ্ছে নাতালি পোর্টমানের হাতে
শাবিপ্রবিতে ৯০ গার্বেজ বিন উদ্বোধন
‘ছেলেধরা সন্দেহভাজনদের মারধর না করে পুলিশে দিন’
ঢাকা-চট্টগ্রামে নদী-দূষণরোধে মাস্টারপ্ল্যান জমা কমিটিতে