php glass

গাইবান্ধায় নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধি, ডুবছে নিম্নাঞ্চল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে ভাঙনের তীব্রতা। ছবি: বাংলানিউজ

walton

গাইবান্ধা: টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢলে গাইবান্ধার তিস্তা, ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, করতোয়া ও ঘাঘটসহ বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে তীব্র আকার ধারণ করেছে নদী ভাঙন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জেলার সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি, সাঘাটা এবং সদর উপজেলার চরাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী নিচু এলাকায় পানি উঠতে শুরু করেছে। তলিয়ে গেছে বিভিন্ন ফসলের ক্ষেত ও অস্থায়ী নৌঘাটগুলো। এতে করে প্লাবিত এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটা বিঘ্নিত হচ্ছে।

প্লাবিত এলাকাগুলো হলো- সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বেলকা, তারাপুর, হরিপুর, কাপাসিয়া ও শ্রীপুর, গাইবান্ধা সদরের কামারজানি, মোল্লারচর, ফুলছড়ি উপজেলার এরেন্ডাবাড়ি, ফজলুপুর, কঞ্চিপাড়া, গজারিয়া, উড়িয়া, সাঘাটা উপজেলার ভরতখালি, হলদিয়া, ঘুড়িদহ ইউনিয়নের চরাঞ্চলের নিচু এলাকা।

এদিকে, নদ-নদীর পানি বাড়ার কারণে স্রোতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী ভাঙন ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। ফলে গত দু’সপ্তাহে নদী ভাঙনে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর, কাপাসিয়া, তারাপুর, বেলকা, হরিপুর ও শ্রীপুর ইউনিয়নের আবাদি জমি, রাস্তাসহ শতাধিক বাড়িঘর এবং দু’শতাধিক একর ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক মোখলেছুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এখনও প্রতিটি নদীর পানি বিপদসীমার অনেক নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢল এই হারে অব্যাহত থাকলে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, সুন্দরগঞ্জের ভাঙন কবলিত এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ১৫০ বান্ডিল ঢেউটিন ও ১০ টন জিআর চাল বিতরণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৯ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: গাইবান্ধা
উদ্যোক্তা হয়ে অন্যকে চাকরি দিন: ইউজিসি চেয়ারম্যান
খুলনা বিভাগীয় সমাবেশের অনুমতি পেলো বিএনপি
বগুড়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ
নুসরাত হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিতে আদালতে ৪ সাক্ষী
আগৈলঝাড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবক নিহত


হালিশহর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজে নিয়োগ
‘থর’র হাতুড়ি যাচ্ছে নাতালি পোর্টমানের হাতে
শাবিপ্রবিতে ৯০ গার্বেজ বিন উদ্বোধন
‘ছেলেধরা সন্দেহভাজনদের মারধর না করে পুলিশে দিন’
ঢাকা-চট্টগ্রামে নদী-দূষণরোধে মাস্টারপ্ল্যান জমা কমিটিতে