নিখোঁজ হওয়ার ৭দিন পর মরদেহ উদ্ধার, আটক ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নারায়ণ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে আটক দুজন পুলিশ হেফাজতে। ছবি: বাংলানিউজ

walton

কুমিল্লা: কুমিল্লার বরুড়া উপজেলা থেকে নিখোঁজ হওয়ার সাতদিন পর নারায়ণ চন্দ্র (৫৪) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চান্দিনা উপজেলার পিহর গ্রামের হর গোবিন্দের মেয়ে উর্মিল্লা চক্রবর্তী সুমা (৩২) ও তার ভাই শংকরকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ।



বুধবার (২৬ জুন) সকালে উপজেলার বড়হাতুয়া গ্রামের রাস্তার পাশের একটি ঝোঁপ থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নারায়ণ কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার মনিপুর এলাকার বাসিন্দা।

দেবপুর ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহিন কাদির বাংলানিউজকে বলেন, গত সাতদিন আগে নারায়ণ বরুড়া উপজেলা থেকে নিখোঁজ হন। পরে এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে তার পরিবার। এরপর পুলিশ তার মোবাইল ট্যাকিং করে বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন থেকে মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাতে সন্দেহভাজন সুমা ও শংকরকে আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পর ভোরে তারা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। সকালে আটক দুজনকে নিয়ে বরুড়া উপজেলার একটি ঝোঁপ থেকে নিখোঁজ নারায়ণের বস্তাবন্দি মরদেহ  উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, আমরা জানতে পেরেছি পরকীয়া সম্পর্কের জেরে নারায়ণের কাছ থেকে প্রায় লাখ টাকা আত্মসাতের পর তাকে কৌশলে হত্যা করে মরদেহ গুমের চেষ্টা করে সুমা ও তার ভাই শংকর।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০১৯
আরআইএস/ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: কুমিল্লা মরদেহ উদ্ধার
সদরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু
স্ক্যানার দিচ্ছে কোরিয়া, ধরা পড়বে যেকোনো ভাইরাস
করোনা ঠেকাতে ছুটছে রোবট, ভিডিও ভাইরাল 
করোনায় অশান্ত হয়ে উঠছে ইলেকট্রনিকস পণ্যের বাজার
বাংলাদেশ-গ্রিস চুক্তির খসড়া অনুমোদন


পুঁজিবাজারে সূচকের টানা উত্থান, বেড়েছে লেনদেন
অবশেষে অপেক্ষা ঘুচলো ওজিলের
রাজশাহীতে পাঁচ দিনব্যাপী পুষ্পমেলা
করোনা ভাইরাস: সঙ্কট আতঙ্কে চুরি ৬০০ টয়লেট টিস্যু
ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে